ববিতে ‘ভোক্তা অধিকার ও খাদ্যে ভেজাল’ বিষয়ে র‌্যালি ও ক্যাম্পেইন

0
311

‘সচেতন হউন, ভালো থাকুন’ এই শ্লোগানে বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয়ে র‌্যালি, সমাবেশ ও সচেতনতামূলক ক্যাম্পেইন করেছে কনজুমার ইয়ুথ বাংলাদেশ-এর (সিওয়াইবি) বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয় শাখা।

মঙ্গলবার (১৯ মার্চ) সকাল ১১টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের মূল ভবনের সামনে থেকে র‌্যালিটি বের হয়। র‌্যালিটি ক্যাম্পাসের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে একই স্থানে এসে শেষ হয়।
এতে কনজুমার ইয়ুথ-ববি শাখার উপদেষ্টা ও শিক্ষক সমিতির সাবেক সভাপতি, ইংরেজি বিভাগের সহকারী অধ্যাপক আরিফ হোসেন, সহকারী অধ্যাপক ও শিক্ষক সমিতির সাধারণ সম্পাদক আবু জাফর মিয়া ও সংগঠনের সভাপতি মোঃ লোকমান হোসেনসহ অন্যান্যরা উপস্থিত ছিলেন।
র‌্যালিতে ‘পণ্যে আমার অধিকার, জানার আছে দরকার’, ‘ভোক্তা হলে সচেতন, বন্ধ হবে অনিয়ম’, ‘ভোক্তা অধিকার নিশ্চিত করি, খাদ্যে ভেজাল রোধ করি’ সহ বিভিন্ন শ্লোগান দেন শিক্ষার্থীরা।
র‌্যালি শেষে খাদ্যে ভেজাল প্রতিরোধে সচেতনতা বৃদ্ধির লক্ষে মূল ভবনের সামনে এক সংক্ষিপ্ত সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। সমাবেশে বক্তব্য রাখেন কনজুমার ইয়ুথ ববি শাখার উপদেষ্টা লোক ও প্রশাসন বিভাগের প্রভাষক তাসনিয়া সুমাইয়া।
তিনি বলেন, বাংলাদেশে ভেজাল খাদ্য সংস্কৃতি পরিবর্তন করতে হবে। আজকের তরুণ প্রজন্মকে এগিয়ে আসতে হবে। সাধারণ জনগনকে তাদের অধিকার সম্পর্কে সচেতন করতে হবে।
শিক্ষক সমিতির সাধারণ সম্পাদক আবু জাফর মিয়া বলেন, ভোক্তা অধিকার আইন সকলের জানা উচিত। আমি মনে করি সিওয়াইবি ববি শাখা সে দায়িত্ব পালন করবে।
সংগঠনের সভাপতি লোকমান হোসেন বলেন, আমরা নিজেরা আমাদের অধিকার সম্পর্কে সতর্ক থাকবো এবং অন্য ভোক্তাদেরকে সতর্ক করবো। আমরা চাই বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয়ের মাধ্যমে সারা বাংলাদেশে এই আন্দোলন ছড়িয়ে যাক।
অনুষ্ঠানে অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, সিওয়াইবি-ববি শাখার সহ-সভাপতি হাফিজুর রহমান, মুক্তা আক্তার, যুগ্ম সম্পাদক সুমন, আফসানা রিয়া, সাংগঠনিক সম্পাদক আজারুল ইসলাম, কোষাধ্যক্ষ মোহাইমুনিল ইসলাম, প্রেস সম্পাদক রহমতুল্লাহ রাহাত, ভোক্তা অধিকার সম্পাদক নাঈম, আইটি সম্পাদক নাহিদ হাসানসহ সংগঠনটির বিভিন্ন পর্যায়ের সদস্যরা।
উল্লেখ্য, কনসাস কনজুমার্স সোসাইটি (সিসিএস) বাংলাদেশ সরকারের সোসাইটি অ্যাক্টে নিবন্ধিত একটি বেসরকারি সংস্থা। ২০১৫ সাল থেকে সংস্থাটি খাদ্যে ভেজাল প্রতিরোধ ও ভোক্তা অধিকার বাস্তবায়নে সচেতনতা সৃষ্টি ও প্রশিক্ষণ দিয়ে যাচ্ছে। বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থীদের মাঝে সচেতনতা সৃষ্টির জন্য সিসিএস ‘কনজুমার ইয়ুথ বাংলাদেশ’ (সিওয়াইবি) নামে যুব শাখা পরিচালনা করে। প্রায় ২০টি বিশ্ববিদ্যালয়ে সংগঠনটির শাখা রয়েছে। বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ে প্রায় ১০ হাজার শিক্ষার্থী এই সংগঠনের সঙ্গে যুক্ত হয়েছেন।

Leave a Reply