লক্ষ্মীপুরের ইয়াবা ব্যবসায়ী টেনাফে বন্দুকযুদ্ধে নিহত! এলাকায় স্বস্তি I TARUNNO BD 24

0
335

অ আ আবীর আকাশ,লক্ষ্মীপুর:

ইয়াবাসহ ধৃত এক মাদক ব্যবসায়ীকে নিয়ে ইয়াবা উদ্ধার অভিযানে গিয়ে বিজিবি’র সাথে বন্দুকযুদ্ধে লক্ষীপুরের মোঃ বেল্লাল হোসেন (৩৫) নামে ১জন ইয়াবা ব্যবসায়ী নিহত হয়েছেন বলে জানা গেছে। নিহত মোঃ বেল্লাল হোসেন লক্ষীপুর সদর উপজেলার ভবানীগঞ্জ আব্দুল্লাহপুর গ্রামের মোঃ আবুল বশরের পুত্র। ঘটনাস্থল থেকে ৭ হাজার পিস ইয়াবা এবং ২টি ধারালো কিরিচ উদ্ধার করা হয়েছে। এ ঘটনায় বিজিবির ২জন সদস্য আহত হন। অভিযানের সত্যতা নিশ্চিত করে টেকনাফ ব্যাটালিয়ন ২ বিজিবির অধিনায়ক লেঃ কর্ণেল মোঃ আছাদুদ-জামান চৌধুরী জানান, ‘২৭ ফেব্রæয়ারি রাত ৮টায় হোয়াইক্যং চেকপোষ্ট হতে বিজিবি কর্তৃক লক্ষীপুর সদর উপজেলার ভবানীগঞ্জ আব্দুল্লাহপুর গ্রামের মোঃ আবুল বশরের পুত্র মোঃ বেল্লাল হোসেনকে (৩৫) ইয়াবাসহ আটক করা হয়।

আটককৃত আসামীকে জিজ্ঞাসাবাদের পর জানা যায়, বিপুল পরিমানে ইয়াবা ২৮ ফেব্রুয়ারি ভোররাতে খারাংখালী বেঁড়ীবাঁধ বরাবর ৩ নম্বর ¯স্লুইচ গেইট এলাকা দিয়ে বাংলাদেশে প্রবেশ করতে পারে। উক্ত সংবাদের ভিত্তিতে টেকনাফ ব্যাটালিয়ন ২ বিজিবির নায়েব সুবেদার মোঃ তোফাজ্জল হোসেনের নেতৃত্বে ১টি টহল দল আটককৃত আসামীকে নিয়ে দ্রুত ৩ নম্বর ¯স্লুইচ গেইট এলাকায় গমন করে। আনুমানিক আড়াইটার দিকে টহল দলের উপস্থিতি লক্ষ্য করা মাত্রই ইয়াবা চোরাকারবারীর দলীয় লোকজন টহলদলের উপর অতর্কিতভাবে গুলি বর্ষণ করতে থাকে এবং ধারালো অস্ত্র নিয়ে আক্রমন করে। এতে বিজিবি’র টহল দলের দুইজন সদস্য আহত হয়।

এ সময় বিজিবি আত্মরক্ষার্থে কৌশলগত অবস্থান নিয়ে পাল্টা গুলি বর্ষন করে। গুলির শব্দ থামার পর ভোরের আলোতে টহল দলের সদস্যরা এলাকা তল্লাশী করে বেড়ীবাঁধের উপর মোঃ বেল্লাল হোসেনকে (৩৫) গুলিবিদ্ধ অবস্থায় পড়ে থাকতে দেখতে পায়। একই সাথে টেকনাফ মডেল থানায় খবর দেয়া হয় ও পুলিশের সহযোগিতায় টেকনাফ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যাওয়া হয়। পরবর্তীতে কর্তব্যরত ডাক্তার উক্ত ব্যক্তিকে মৃত ঘোষনা করেন।

উক্ত স্থান হতে আনুমানিক ৭ হাজার পিস ইয়াবা ট্যাবলেট ও ২টি ধারালো কিরিচ উদ্ধার করা হয়। আহত বিজিবি সদস্যদের টেকনাফ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা শেষে বর্তমানে বিজিবি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছে। এ ব্যাপারে আইনী ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে’।

এদিকে বেল্লালের মৃত্যুতে ভবানীগঞ্জ শরীফপুর,আবদুল্লাহপুরসহ চরভুতা চরউভূতির মানুষের মাঝে স্বস্তি ফিরছে বলে সাধারন জনগনের সাথে আলাপ কালে জানা গেছে। বেল্লাল ও তার ইয়াবা বাহিনী কতৃক এতোদিন এলাকায় ত্রাসত্ব বিরাজ করছিলো।

Leave a Reply