লক্ষ্মীপুরে ওয়াক্‌ফের বিশাল সম্পত্তি নিয়ে দু’গ্রুপে পাল্টাপাল্টি!

0
686

লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি: লক্ষ্মীপুরে আদালতে তদন্ত প্রতিবেদন দাখিল করাকে কেন্দ্র করে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও তৎসংশ্লিষ্ট ধর্ম মন্ত্রণালয়ের সাবেক যুগ্ম সচিব বোরহান উদ্দিন ও শিক্ষক আবদুর রবকে জড়িয়ে পকেট কমিটির কথিত সদস্য জাহাঙ্গীর আলম স্বার্থান্ধ হয়ে মনগড়া সংবাদ প্রচার করেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

ঘটনার বিবরণে জানা গেছে, লক্ষ্মীপুর সদরের দালাল বাজার ইউনিয়নের আলী রাজা পাটওয়ারী ওয়াক্‌ফের বিশাল সম্পত্তি নিয়ে নুরুল আলম বাহার ও আবদুর রব গংদের মাঝে দীর্ঘদিন ধরে বিবাদ চলে আসছিলো। তারই আলোকে জাহাঙ্গীর আলম বাদী হয়ে আদালতে ৬১৬/১৮সিআর মামলা দায়ের করেন। এ মামলার তদন্তভার উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার উপর ন্যাস্ত হলে তিনি সরেজমিনে উভয়পক্ষের উপস্থিতিতে তদন্ত করে আদালতে প্রতিবেদন দাখিল করেন। এতে মামলাটি ডিসমিস হয়ে যায়।

এরপর জাহাঙ্গীর আলম পুলিশ সুপারের নিকট লুটতরাজের অভিযোগ এনে আরেকটি এসডিআর করেন বলে শিক্ষক আবদুর রব জানান। সেটাও সঠিকভাবে বাদী বিবাদীর উপস্থিতে তদন্ত করে প্রতিবেদন দাখিল করলে খারিজ হয়ে যায়।

জানা গেছে, নুরুল আলম বাহার, ইসমাইল হোসেন আরজু ও জাহাঙ্গীর আলম তাদের সঙ্গীয়দের নিয়ে কথিত ভৌতিক কমিটি উপস্থাপন করে ওয়াক্‌ফের মোতাওয়াল্লী হওয়ার জন্য তারা উঠে পড়ে লেগেছে। আলী রাজা পাটওয়ারীর ১৯০১সনের ১৪৯২ রেজিষ্ট্রিকৃত ওয়াক্‌ফ দলিলের উদ্ধৃতি দিয়ে ওয়াক্‌ফ অফিস ঢাকা হতে মোতাওয়াল্লীর পদ হাসিল করে। উক্ত মিথ্যা তথ্যের বিরুদ্ধে লক্ষ্মীপুর বিচারিক আদালতে একাধিক মামলা চলমান। আবদুর রব লিখিতভাবে জানান -মরহুম ওয়াজি উল্লা মাষ্টার উক্ত মিথ্যা দলিলের তথ্য দিয়ে আলী রাজার ভৌতিক ওয়াকপ সৃষ্টি করেছেন। তা আদৌ সঠিক কিনা তা আদালতই প্রমাণ করবে বলেও সাবেক এ শিক্ষক জানান।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে