কমলনগরে গৃহবধূকে নির্যাতনের অভিযোগ

0
664

লক্ষীপুর প্রতিনিধি : লক্ষ্মীপুর কমলনগরে এক গৃহবধূকে পিটিয়ে আহত করার খবর পাওয়া গেছে। বর্তমানে আহত ওই গৃহবধূ কমলনগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি রয়েছে।

জানা গেছে, কমলনগর উপজেলার ৩নং চর লরেন্স ইউনিয়নের ২নং ওয়ার্ডস্থ সাইফুল্লাহর বাড়ি সাইফুল্লাহর ছেলে আনোয়ার হোসেন মিলনের স্ত্রী এক সন্তানের জননী রুনা আক্তার (২৮) কে একই বাড়ির ভাসুর জুয়েল (৩৫)আসমা আক্তার(২৪) শ্বশুর সাইফুল্লা(৫৮)শাশুড়ি শেফালি(৫০) স্বামী আনোয়ার হোসেন মিলনসসহ মারধোর করে বাড়ি থেকে বের করে দেয় গতকাল শুক্রবার রাত ১১টার দিকে।

শীতের রাতে নির্যাতিতা রুনা আক্তার ও তার দশ বছরের শিশু ছেলে আতিফ আসলাম কে নিয়ে বাহিরে রাত কাটানোর খবর পেয়ে স্থানীয় চেয়ারম্যান নুরুল আমিন মাস্টার গ্রামপুলিশ দিয়ে উদ্ধার করে আজ শনিবার সকালে চেয়ারম্যান নিজেই নির্যাতিত গৃহবধূর অবস্থা আশঙ্কাজনক দেখে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে পাঠান। বর্তমানে নির্যাতিত ওই গৃহবধূ উক্ত হাসপাতালে ভর্তি রয়েছে। যার ভর্তি নং 12 10/ 16.

বিবরণে জানা গেছে, সাইফুল্লাহর ছেলে আনোয়ার হোসেন মিলন ও নোয়াখালী সদরের পূর্ব মাইজচরা গ্রামের হুমায়ূন মেম্বারের বাড়ির হুমায়ুন কবীরের দ্বিতীয় মেয়ে রুনা আক্তারের বিয়ে হয় ২০০৫ সালে। এরপর আনোয়ার হোসেন বিদেশ যাবে বলে দুই লাখ টাকা, বাড়িতে বিল্ডিং করার সময় দুই লাখ, বিদেশ থেকে এসে ব্যবসা করার কথা বলে ৬০ হাজার টাকা ধার নেয়। এরপর আনোয়ার হোসেন মিলন পরকীয়ায় জড়িয়ে চট্টগ্রামে আরেক বিয়ে করে। এই নিয়ে সংসারএ অশান্তি সৃষ্টি হলে মিলন ও তার ভাই বোন সহ রুনার উপরে অমানুষিক নির্যাতন।

এ বিষয়ে স্থানীয় চেয়ারম্যান নুরুল আমিন মাস্টার বলেন আমি ঘটনা শুনে নির্যাতিত মেয়েকে গ্রাম পুলিশ দিয়ে উদ্ধার করে হাসপাতালে পাঠাই। তার অভিভাবককে বলেছি তারা ইউনিয়ন পরিষদ কার্যালয়ে লিখিত অভিযোগ দেয়ার জন্য। অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে