কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে শিল্পী অশোক সেনগুপ্তের শেষ যাত্রা অনুষ্ঠিত

0
803
oznor

গনসঙ্গীত শিল্পী, গীতিকার, সুরকার, সংগঠক এবং আওয়ামী শিল্পী গোষ্ঠী, চট্টগ্রামের সাধারণ সম্পাদক, স্বৈরাচার বিরোধী আন্দোলনে সংস্কৃতিক সংগঠক অশোক সেনগুপ্তের শেষ যাত্রা উপলক্ষে আজ সকাল ১০ ঘটিকায় কেন্দ্রীয় শহিদ মিনারে শোক সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। চট্টগ্রামের সর্বস্তরের সংস্কৃতিকর্মীদের উপস্থিতিতে শোক সমাবেশে নগরীরর রাজনৈতিক, সাংস্কৃতিক সংগঠনের সংগঠক ও কর্মীবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। শোক সমাবেশে নগরীর মেয়র আ.জ.ম নাছির উদ্দিন, নগর আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মাহতাব উদ্দিন, নগর আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি খোরশেদ আলম সুজন, মহানগর মহিলা আওয়ামী লীগের সভাপতি প্রয়াত মেয়র এবিএম মহিউদ্দিন’র সহধর্মিনী হাসিনা মহিউদ্দিন, দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মফিজুর রহমান, সভাপতি মোসলেম উদ্দিন, দক্ষিণ জেলা মহিলা আওয়ামী লীগের সভাপতি চেমন আরা তৈয়ব, সাধারণ সম্পাদক শামিমা হারুন, ফিরীঙ্গি বাজার ওয়ার্ড কাউন্সিলর হাসান মুরাদ বিপ্লব, জেলা শিল্পকলা একাডেমির সাধারণ সম্পাদক সাইফুল আলম বাবু, কালচারাল অফিসার মোসলেম উদ্দিন সিকদার, নাট্যজন প্রদীপ দেওয়ানজী, নাট্যজন মুনির হেলাল, জাহাঙ্গীর কবির, বঙ্গবন্ধু ফাউন্ডেশনের পিনাকী দাশ, স্বাধীন বাংলা বেতার কেন্দ্রের শিল্পী মুক্তিযোদ্ধা মৃনাল ভট্টাচার্য্য, সুজিত রায়, উদীচী চট্টগ্রামের সভাপতি ডাঃ চন্দন দাশ, সাধারণ সম্পাদক শীলা দাশগুপ্ত, আবৃত্তি শিল্পী রাশেদ হাসান, অঞ্চল চৌধুরী, মুক্তিযোদ্ধা অমল মিত্র, দেবাশীষ গুহ বুলবুল, শিল্পী কল্পনা লালা, স্বর্ণময় চক্রবর্তী শিল্পী অশোক সেনগুপ্তকে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন। এছাড়াও বিভিন্ন সংগঠন ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা নিবেদন ও স্মৃতিচারণ করে। অনুষ্ঠানে শোক সংগীত পরিবেশন করেন শিল্পী কাবেরী সেনগুপ্ত, শ্রেয়সী রায় এবং আওয়ামী শিল্পী গোষ্ঠির শিল্পীবৃন্দ।

শোক সমাবেশে নগরীর মেয়র আ.জ.ম নাছির উদ্দিন বলেন, অশোক সেনগুপ্তের মৃত্যুর মধ্য দিয়ে সাংস্কৃতিক অঙ্গনে যে শূণ্যতার সৃষ্টি হল তা পূরণ হবার নয়। বঙ্গবন্ধু হত্যাকান্ডের পর যেখানে সাহস করে তাঁর নাম কেউ উচ্চারণ করেনি কিন্তু অশোক সেনগুপ্ত তাঁর গণজাগরনের গানের মাধ্যমে তিনি সংগঠিত করেছিলেন রাজনীতি এবং সংস্কৃতি অঙ্গনের কর্মীদের। নগর আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মাহতাব উদ্দিন বলেন, ৭৫ পরবর্তী সময়ে বঙ্গবন্ধুর হত্যাকান্ডের পর অশোক সেনগুপ্ত তাঁর সংগীতের মধ্য দিয়ে সাহসিকতার সঙ্গে প্রতিবাদ জানিয়েছেন ও কারা বরণ করেছেন। হাসিনা মহিউদ্দিন বলেন, দীর্ঘ দিন ধরে রাজপথে জননেতা এবং আওয়ামী শিল্পী গোষ্ঠির প্রতিষ্ঠাতা এবিএম মহিউদ্দিন চৌধুরীর সঙ্গে ছিলেন, প্রয়াত অশোক সেনগুপ্ত। উল্লেখ চিকিৎসাধীন অবস্থায় গত ৫ ডিসেম্বর শিল্পী অশোক সেনগুপ্ত কলকাতার টাটা সেন্টার হাসপাতালে মৃত্যু বরণ করেন। শোক সমাবেশে অশোক সেনগুপ্তের পরিবারের পক্ষ থেকে বক্তব্য রাখেন, তাঁর জামাতা চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক নাট্যজন অসীম দাশ। অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন নাট্যকর্মী ও সৃজামি সাংস্কৃতিক অঙ্গণের সাধারণ সম্পাদক সুজিত চক্রবর্তী।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে