১২টি ঘণ্টাধ্বনি বাজিয়ে,ইন্টারন্যাশনাল উইম্যান’স এসএমই এক্সপো মেলা উদ্বোধন

2
938

আনিসুর রহমান: চট্টগ্রামে ১২তম ইন্টারন্যাশনাল উইম্যান’স এসএমই এক্সপো বাংলাদেশ ২০১৮ উদ্বোধনকালে গওগর রিজভী বলেন, আমাদের দেশের নারীরা এগিয়ে যাচ্ছে এটি গর্বের ব্যাপার। এখানে থেমে যেতে চাই না। পৃথিবীতে গ্লাস সিলিং ভাঙার দুই পথ- বিজনেস ও পলিটিকস। খুব জোরে এগিয়ে যান। ৩০ নয়১৫০ হবে সংসদে নারীদের আসন। আপনাদের কাছে ৫১ শতাংশ ভোট আছে। এ ভোট দিয়ে সব দুয়ার খুলে দিতে পারেন।

রোববার (৪ নভেম্বর) সন্ধ্যায় নগরের পলোগ্রাউন্ড মাঠে এই মেলা উদ্বোধন হয়।
নারী উদ্যোক্তাদের উৎপাদিত পণ্যের বাজার সৃষ্টি, প্রচার ও প্রসারের লক্ষ্যে চিটাগাং উইম্যান চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রি (সিডব্লিউসিসিআই) রপ্তানি উন্নয়ন ব্যুরো, দি ফেডারেশন অব বাংলাদেশ চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রি ও শিল্প মন্ত্রণালয়ের সহযোগিতায় এ মেলার আয়োজন করে। জাতীয় সংগীত পরিবেশনার মধ্য দিয়ে শুরু হয় অনুষ্ঠান। ১২টি ঘণ্টাধ্বনি বাজিয়ে, মাটির ব্যাংক মেলার উদ্বোধন করেন প্রধান অতিথিরা।
মাহবুবুল আলম বলেন, সবসময় চট্টগ্রাম সর্বাগ্রে। রক্ষণশীল সমাজে নারীরা ব্যবসা করবে একসময় ভাবাই যেত না। প্রধানমন্ত্রীর নারীর ক্ষমতায়ন নীতির কারণে নারীরা এগিয়ে যাচ্ছে। তারা ঘরে বসে থাকার দিন নেই। আগমী ১০ বছর বাংলাদেশের উজ্জ্বল সময়। বৃহত্তর চট্টগ্রামে পর্যটন ও ব্লু ইকোনমি কাজে লাগাতে হবে।
বিশেষ অতিথি ছিলেন সংসদ সদস্য সাবিহা নাহার বেগম, বাংলাদেশে নিযুক্ত সংযুক্ত আরব-আমিরাতের রাষ্ট্রদূত সাদ মোহাম্মদ আল-মুহাইরি, চট্টগ্রাম চেম্বার সভাপতি মাহবুব আলম, এশিয়ান ইউনিভার্সিটি ফর উইম্যানের উপাচার্য প্রফেসর নির্মলা রাও এবং লায়ন কামরুন মালেক।
সিডব্লিউসিসিআই সভাপতি মনোয়ারা হাকিম আলীর সভাপতির বক্তব্যে বলেন, আমাকে নতুন জীবন দিয়েছিলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। আমি কৃতজ্ঞ। এ দেশের নারী উদ্যোক্তারা কৃতজ্ঞ।
স্বাগত বক্তব্য দেন মেলা কমিটির চেয়ারপারসন ডা. মুনাল মাহবুব, তিনি বলেন, নারীরা এগিয়ে গেলে দেশ এগিয়ে যাবে। উইম্যান চেম্বার নারী উদ্যোক্তাদের সহযোগিতার পাশাপাশি উৎপাদিত পণ্যের বাজার সৃষ্টি করছে।


অনুষ্ঠানে সফল নারী উদ্যোক্তা ডা. মুনাল মাহবুব, ফাতেমা বেগম, নাসরিন সরওয়ার মেঘলা ও মুশতারী মোরশেদ স্মৃতি, গ্রাসরুট, নূর নাহার বেগম, সাজেদা বেগমকে সম্মাননা জানানো হয়। আন্তর্জাতিক অ্যাওয়ার্ডজয়ী মনোয়ারা হাকিম আলী, আয়শা আকতার ডালিয়া, মানতাসা আহমেদ, সৈয়দা জিন্নাত আরা নিপুণ, সুলতানা নূরজাহান রোজী, জেসমিন আকতার, সাবরিনা একরাম সিরাজী, শারমিন হোসাইন, গুলশানা আলী, নাফিজা শারমিন, রুহী মোস্তফা, আয়শা ফরহাদ চৌধুরী, রেবেকা নাসরিন, কামরুন মালেক, আবিদা সুলতানা, রোজিনা আকতার লিপি প্রমুখকে উত্তরীয় ও মেডেল পরিয়ে দেন প্রধান অতিথিরা।

2 মন্তব্য

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে