নির্বাচনে খালেদার অংশ নেওয়ার সুযোগ নেই: দুদকের আইনজীবী

0
697

জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট মামলায় দশ বছরের সাজার কারণে খালেদা জিয়া নির্বাচনে অংশ নিতে পারবেন না বলে মনে করেন দুর্নীতি দমন কমিশনের আইনজীবী খুরশিদ আলম খান।

আজ মঙ্গলবার বিচারপতি এম ইনায়েতুর রহিম ও বিচারপতি মোস্তাফিজুর রহমানের হাইকোর্ট বেঞ্চ আজ মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে এ রায় ঘোষণার পর তিনি এ মন্তব্য করেন।

খুরশিদ আলম খান বলেন, জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট মামলায় খালেদা জিয়া প্রধান আসামি ছিলো। কিন্তু বিচারিক আদালত প্রধান আসামি খালেদা জিয়াকে ৫ বছর সাজা দিয়ে অন্য আসামিদের দশ বছর করেছিলো। এ কারণে আমরা সংক্ষুব্ধ ছিলাম। এরপর আমরা নিম্ন আদালতের রায়ের বিরুদ্ধে রিভিশন আবেদন করেছি। আদালত শুনানি শেষে প্রধান আসামি খালেদা জিয়ার সাজা দশ বছর করে দিয়েছেন। এ রায়ের কারণে খালেদা জিয়া আসন্ন নির্বাচণে অংশ নিতে পারবনি না। আমরা আপাতত এ রায়ে সন্তোষ প্রকাশ করছি।  রায় স্থগিত হলে নির্বাচনে অংশ নিতে পারবে কিনা এ প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, সেটা পরে দেখা যাবে। তবে আপাতত তিনি নির্বাচনে অংশ নিতে পারবে না।

খুরশীদ আলম খান সাংবাদিকদের বলেন, ‘জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট মামলায় খালেদা জিয়ার আপিল শুনানিতে এর আগে ৩১ অক্টোবর পর্যন্ত সময় বেধে দিয়েছিলেন আপিল বিভাগ। সেই আদেশ অনুসারে পুনরায় আপিল শুনানির সময় বৃদ্ধি চেয়ে খালেদা জিয়ার আইনজীবীরা আপিল বিভাগে আবেদন করেছিলেন। কিন্তু আপিল বিভাগ সে আবেদন খারিজ করে দেন। এর ফলে এ মামলায় হাইকোর্টে আপিল নিষ্পত্তিতে পূর্বের নির্ধারণ করা ৩১ অক্টোবর পর্যন্ত সময় বহাল থাকছে। তাই জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট মামলায় হাইকোর্টে করা খালেদা জিয়ার আপিল শুনানি আর মাত্র একদিন পরেই (আজ মঙ্গলবার) নিষ্পত্তি করতে হবে।’

বিডি-প্রতিদিন

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে