করোনাকালীন সময়ে শিশু সুরক্ষায় আমাদের ভাবনা

0
129

নাজমুল হোসেন, দিনাজপুরঃ
দিনাজপুর জেলার বীরগঞ্জ উপজেলায় আলোকিত শিশু ফোরামের আয়োজনে ”শিশু সুরক্ষায় আমাদের ভাবনা” শীর্ষক একটি অনলাইন ভিত্তিক একটি আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। উক্ত সভায় সঞ্চালক ও সভাপতিত্বে করেন মোঃ নুরনবী-সভাপতি, উপজেলা শিশু ফোরাম, বীরগঞ্জ শাখা। উক্ত সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সারোয়ার মুর্শিদ আহম্মেদ, উপজেলা সমাজ সেবা অফিসার, বীরগঞ্জ, বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন মোঃ সোহেল রানা, এসআই (তদন্ত)-বীরগঞ্জ, মানুয়েল হাসদা, ওয়ার্ল্ড ভিশন এপি ম্যানেজার, আমিনা বেগম-এ এসআই, মোঃ তানজিমুল ইসলাম- এ্যাডভোকেসী ও সোসাল একাউন্টেলিটি-ওয়ার্ল্ড ভিশন, মোঃ নাজমুল হোসেন-সাংবাদিক, মারগারেট মধু, ফিল্ড স্পেশালিষ্ট, ওয়ার্ল্ড ভিশন বাংলাদেশসহ বিভিন্ন শিশু ও যুব প্রতিনিধি ওয়ার্ল্ড ভিশনের কর্মকর্তাগন উপস্থিত ছিলেন। উক্ত আলোচনায় তরুন নেতা মোর্শেদ হোসেন আসিফ, আবু বক্কর, রতনসহ সহ অন্যান্য বক্তারা বলেন যে, করোনা কালীন সময়ে শিশু প্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকায় শিশুদের লেখাপড়া মারাত্বকভাবে বিঘ্নিত হচ্ছে। তারা বাল্যবিবাহ, শিশু শ্রম ও মাদক সেবনে জড়িয়ে পড়ছে। অনেক শিশুরা মোবাইল গেইমের মধ্যে আসক্তি হচ্ছে, যা অত্যন্ত ক্ষতিকর। এই করোনাকালীন সময়ে বাল্যবিবাহ, শিশু শ্রম, মাদক দ্রব্য গ্রহন শিশুদের উল্লেখ যোগ্যভাবে বৃদ্ধি পেয়েছে। আমাদের লক্ষ্য হলো শিশুদেরকে এগুলো থেকে দুরে রাখা। তাই আমাদেরকে গ্রামে, পরিবার পর্যাযে বুঝাতে হবে। তাই আসুন আমরা শিশু সুরক্ষা ও তাদের অধিকার বাস্তবায়নে শিশু ফোরাম, যুব ফোরাম, সরকারী বেসরকারী সংস্থা সবাইকে একযোগে কাজ করি। বিশেষ অতিথি বীরগঞ্জ থানার এসআই (তদন্ত) মোঃ সোহেল রানা বলেন যে, বাংলাদেশ পুলিশ শিশুসহ নারী, প্রতিবন্ধীদের সুরক্ষায় ব্যপক কাজ করছে। পুলিশ এখন জনগনের সেবার সবসময় সজাগ রয়েছে। শিশু ফোরামসহ আমরা সবাই মিলে শিশু ও অভিভাবকগনকে শিশু সুরক্ষাসহ ইতিবাচক অভিভাবকত্ব বিষয়ে শিক্ষা দিব। জনগনকে চাইল্ড হেল্প ডেস্ক কার্যক্রম ও চাইল্ড হেল্প লাইন নম্বর (১০৯৮) বিষয়ে জনগনকে ব্যপকভাবে সচেতন করতে হবে। বীরগঞ্জ থানা সবসময় শিশু ফোরাম ও ওয়ার্ল্ড ভিশনের আন্তরিকতার সাথে কাজ চলমান রাখবেন বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন। শিশু সুরক্ষা বিষয়ে প্রধান অতিথি বলেন, শিশু সুরক্ষা বাংলাদেশ সরকার বদ্ধ পরিকর। শিশু সুরক্ষায় সরকার চাইল্ড হেল্প ডেস্ক, শিশু পরিবার যত্ন (এতিম পরিবার), শিক্ষা কার্যক্রম, ১০০% শিশু স্কুল মূখীকরণ কার্যক্রম, আইনি সহায়তা দান ইত্যাদি কার্যক্রম পরিচালনা করছে। সরকারের পাশি পাশি ওয়ার্ল্ড ভিশন বাংলাদেশের মতো বেসরকারী সংস্থা ও শিশু ফোরামগুলো যদি শিশুদের স্কুলমূখীকরণ, মাদক থেকে দুরীকরণ, কাউন্সিলিং দেয়া, শিশু সুরক্ষা বিশেষতঃ বাল্য বিবাহ, শিশু শ্রম বন্ধে আরও ভুমিকা পালন করে, তাহলে শিশুরা আরো নিরাপত্তা ও উপকৃত হবে এবং সরকারের লক্ষ্যমাত্রা অর্জনে সহায়কা হবে। ওয়ার্ল্ড ভিশন বাংলাদেশের প্রতিনিধিগন বলেন যে, শিশু সুরক্ষায় ওয়ার্ল্ড ভিশন বাংলাদেশ এলাকায় সরকারের পাশাপাশি ব্যপকভাবে কাজ করে যাচ্ছে। এটি সবর্দা শিশু অধিকার নিশ্চিতের উপর গুরুত্ব আরোপ করেন। বীরগঞ্জ এপি জননগনকে চাইল্ড হেল্প ডেস্ক ১০৯৮ বিষয়ে জনগনকে অবহতিকরণ, ৩-৫ বছর বয়সী শিশুদের প্রাক প্রাথমিক শিক্ষা দান, জীবন দক্ষতা ও ইমপেক্ট প্লাস শিক্ষা, দরিদ্র জনগনের জীবিকা উন্নয়ন ও স্বাস্থ্য উন্নয়ন , মানসিক স্বাস্থ্য বিষয়ে কাউন্সিলিং, স্থানীয় বিভিন্ন সংগঠনের সক্ষমতা বৃদ্ধিসহ বিভিন্ন ধরনের ইত্যাদি বিষয়ে কাজ করে যাচ্ছে। তিনি আরও বলেন, ওয়ার্ল্ড ভিশন বাল্যবিবাহ বন্ধে একটি কর্মপরিকল্পনা হাতে নিয়েছে, যা সরকারী বেসরকারী, ধর্মীয় নেতৃবৃন্দ সকলকে সাথে নিয়ে কাজ করা হবে। সভাপতি শেষে সকল অতিথি ও অংশগ্রহনকারীগন ধন্যবাদ দিয়ে সমাপ্ত করেন।