ইরানে পোশাক রফতানির সুযোগ কাজে লাগাবে বাংলাদেশ

0
125

অনলাইন ডেস্ক:ইরানে পোশাক রফতানির সুযোগ কাজে লাগাতে চায় বাংলাদেশ। বিশেষ করে ইরান সেনাবাহিনীর জন্য পোশাক রফতানির সুযোগটি কাজে লাগাতে ইতোমধ্যেই দুই দেশের আগ্রহের কথা মাথায় রেখে এ বিষয়ে কাজ শুরু হয়েছে।

রবিবার বিজিএমইএর নতুন সভাপতি ফারুক হাসানের সাথে সৌজন্য সাক্ষাৎ শেষে এ সম্ভাবনার কথা জানান ইরান-বাংলাদেশ চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ড্রাটিজের প্রতিষ্ঠাতা প্রেসিডেন্ট, এফবিসিসিআই পরিচালক ও দৈনিক ভোরের পাতার সম্পাদক ও প্রকাশক ড. কাজী এরতেজা হাসান সিআইপি।

সাক্ষাৎকালে সৌহার্দ্যপূর্ণ এক আলোচনায় পোশাক খাতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রণোদনা থেকে শুরু করে করোনাকালীন সময়ে দেশের অর্থনীতির চাকা সচল রাখতে পোশাক খাতের সঠিক নেতৃত্বের জন্য এরতেজা হাসান বিজিএমইএর সভাপতি ফারুক হাসানকে ধন্যবাদ জানান।

 

একইসঙ্গে ইরান বাংলাদেশ চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ড্রাটিজের প্রতিষ্ঠাতা প্রেসিডেন্ট হিসাবে ড. কাজী এরতেজা হাসান ইরানে বাংলাদেশের পোশাক খাতের সম্ভাবনা নিয়ে কথা বলেন। তিনি জানান, ইরানের সামরিক পোশাকগুলো বর্তমানে চীন থেকে আমদানি করা হয়। এটা বাংলাদেশ থেকে করতে নিতে চায় ইরান। এ বিষয়ে বাংলাদেশের কয়েকটি প্রতিষ্ঠিত পোশাক শিল্প গ্রুপ ইতিমধ্যে আগ্রহ প্রকাশ করেছে।

এছাড়া, বিদেশি ক্রেতাদের কাছ থেকে নানা সময়ে পোশাক খাতের পাওনা আদায়ে আরবিটিশন করতে বাংলাদেশ এখনো আন্তজার্তিক মানের আরবিটিশন বোর্ড গঠন করতে পারেনি। সুপ্রিম কোর্টের অবসরপ্রাপ্ত বিচারপতিদের দিয়ে আরবিটিশন বোর্ড গঠন করারও প্রস্তাব দেন এরতেজা হাসান।

সৌজন্য সাক্ষাতের সময় বিজিএমইএ সভাপতি ফারুক হাসান বলেন, ইরানে পোশাক রফতানির সুযোগকে কাজে লাগাতে বিজিএমইএ কাজ করবে। আরবিটিশন বোর্ডের আধুনিকায়ন এবং যুগোপযোগী করার জন্য এরতেজা হাসানের দেয়া প্রস্তাবকে সাধুবাদ জানিয়েছেন বিজিএমইএ সভাপতি।

 

বিডি প্রতিদিন