প্রথম ডেটে ম্যাকডুগালকে টাকা অফার করেছিলেন ট্রাম্প!

0
553

 

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোলান্ড ট্রাম্প সম্পর্কে কথার বোমা ফাটালেন তার সাবেক প্রেমিকা। প্রাপ্তবয়স্কদের মার্কিন সাময়িকী ‘প্লেবয়’-এর সাবেক মডেল ক্যারেন ম্যাকডুগাল এক সাক্ষাৎকারে বলেছেন, প্রথমবার যৌন সম্পর্কের পর প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প তাকে টাকা দিতে চেয়েছিলেন। তার সঙ্গে ট্রাম্পের সম্পর্ক ছিল ১০ মাস। আর এজন্য তিনি মার্কিন ফার্স্ট লেডি মেলানিয়া ট্রাম্পের কাছে ক্ষমাও চেয়েছেন।

বৃহস্পতিবার (২২ মার্চ) ম্যাকডুগাল সিএনএনকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে ট্রাম্পের সঙ্গে তার সম্পর্কের কথা জানান।

তিনি দাবি করেন, তার সঙ্গে ট্রাম্পের প্রথমবার যৌন সম্পর্ক হয়েছিল ২০০৬ সালে বেভারলি হিলস হোটেলে। যৌন সম্পর্কের পর তিনি আমাকে টাকা দিতে চেয়েছিলেন। কিন্তু এটা কীভাবে নেওয়া সম্ভব, সত্যিই আমি তা জানতাম না। আমি তার (ট্রাম্প) দিকে কিছুক্ষণ তাকিয়ে থেকে বললাম, আমি অমন না। আপনি যেমন ভাবছেন তেমন মেয়ে আমি নই।

সেদিন বাড়ি ফেরার পথে ম্যাকডুগাল কেঁদে ফেলেছিলেন। আর ট্রাম্পের সঙ্গে আবারও তার সাক্ষাৎ হবে, তা তিনি ভাবেননি। তবে এরপর ট্রাম্পের আহ্বানে আবার তাদের দেখা হয়, যোগ করেন ম্যাকডুগাল।

সিএনএনের সাক্ষাৎকারে ম্যাকডুগাল বারবার ট্রাম্পকে ‘খুবই আকর্ষণীয়’ ও ‘মিষ্টি স্বভাবের’ বলে আখ্যায়িত করেন।

তিনি বলেন, যখন আমি পেছনে ফিরে তাকাই, সেই সময়ে ফিরে যাই। আমি জানি ওটা ভুল ছিল। আমি সত্যিই এর জন্য দুঃখিত। আমি আর এটা করতে চাই না।

ম্যাকডুগাল দাবি করেন, ট্রাম্পের সঙ্গে তার সম্পর্ক ২০০৭ সালের এপ্রিল মাস পর্যন্ত ছিল। তিনি সম্পর্ক ভেঙে দেন, কারণ মনে মনে তিনি নিজেকে দোষী বলে মনে করছিলেন। ট্রাম্পের সঙ্গে তিনি নিউইয়র্ক, নিউ জার্সি ও ক্যালির্ফোনিয়ার বিভিন্ন জায়গায় ঘুরেছেন। তাদের মধ্যে বেশ কয়েকবার যৌন সংসর্গও ঘটে।

এদিকে, ম্যাকডুগালের সঙ্গে কোনো ধরনের সম্পর্কের কথা এর আগে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প অস্বীকার করেছেন বলে হোয়াইট হাউসের পক্ষ থেকে দাবি করা হয়। অবশ্য বৃহস্পতিবারের সাক্ষাৎকার নিয়ে কোনো মন্তব্য তিনি এখনো করেননি।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে