কবিতা: হৃদয়শিউলি

0
207

কবিতা: হৃদয়শিউলি

কবি: মেঘা ঘোষ

কবে যে কে ভালোবেসেছে লুকিয়ে গহন তলে!
হয়নি নেওয়া বেদনা তাঁর অভয়ে অশ্রু করতলে।
চলেছি নিজের ছন্দমতো গেয়েছি নিজের গান।
বন্ধ জীবন অন্ধকারে কাউকেই,করেনি আহ্বান!
ভোরের হাওয়ায় শিউলি তলায় মুগ্ধ ফুলের আবেশ।
কিশোরীকালে কুড়োতে যাওয়া নানান বন্ধু সমাবেশ।
তার ভেতরই চুপটি করে থাকতো চেয়ে কে—-?
অন্ধকারের অন্তরালে লুকিয়ে অজান্তে অলক্ষ্যে!
একটিবারও বলেনি কথা কখনো সম্মুখেতে এসে।
লুকিয়ে দেখার ছলনা তাঁর ওঠেনি চোখে ভেসে!
গোপন মনের গোপন চাবি সিন্দুকেতে রেখে,
একটা জীবন কাটিয়ে দিল আড়ালে থেকে,দেখে!
আজকে হঠাৎ ছন্দপতন স্তব্ধ আকাশ-বাতাস।
লুকিয়ে থাকা ছেলেটা যেন জীবন্ত এক লাশ!
বলেনি সে অভয় মনে কাউকে,কাছে আসার কথা|
এক সমুদ্র ভালোবেসেও ‘গ্রহণ ‘ লুকিয়েছে অযথা!
কেন এত উচাটন?কিসের কেনই বা বিড়ম্বনা?
ভালোবাসলে বলতে হয়,উপরে করতে নেই ছলনা!
আজকে যখন বধূর বেশে শিউলির রাঙা চরণ পা,
লুকিয়ে থাকা ছেলেটা আজ পথে প্রকাশ্যে একলা।
ধুলোর সাজে চুলের গড়ন মুখের জ্যোতি ক্ষীণ!
কখনো জানালো নাতো “ভালোবাসি”,এটা কি সমীচীন?!
বরের গাড়ি বধূর বেশে শিউলি চলেছে নতুন আশ্রয়;
ছেলেটা কেন কাঁদছে অতো?আজ প্রকাশ্যে নিজেকে দিচ্ছে প্রশ্রয়?!

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে