মানবতার ফেরিওয়ালা সাবেক চেয়ারম্যান আব্দুল হাই এর চতুর্থ দফা জানাজা শেষে দাফন সম্পন্ন

0
57

মোঃ রবিউল আলম
চাঁদপুরের মতলব দক্ষিন উপজেলার খাদের গাঁও ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান, খাদের গাঁও ইউনিয়ন বিএনপির সাবেক সভাপতি, মতলব দক্ষিন উপজেলা বিএনপির যুগ্ন সাধারন সম্পাদক, শাহাজউদ্দিন ফাউন্ডেশনের প্রতিষ্ঠাতা,বিশিষ্ট সমাজ সেবক ও রাজনীতিবিদ, রোটারিয়ান মোহাম্মদ আব্দুল হাই আজ ১২ সেপ্টেম্বর ভোর ৫টা ২৫ মিনিটের সময় ঢাকা ইউনাইটেড হসপিটালে র আইসিইউতে চিকিৎসারত অবস্থায় জ্বর ও নিউমোনিয়া জনিত কারনে ইন্তেকাল করেন। ইন্না,,, রাজেউন। মৃত্যু কালে তার বয়স হয়েছিল (৪২) বছর। মৃত্যু কালে তিনি স্ত্রী, ১ ছেলে, ১ মেয়ে, ২ ভাই, ৪ বোন সহ অসংখ্য আত্ত্বীয় স্বজন ও গুণ গ্রাহী রেখে গেছেন। মরহুমের ৪টি জানাজা সম্পন্ন হবার পর তার লাশের দাফন সম্পন্ন হয়। প্রথম জানাজা ঢাকা ইউনিভার্সিটি এলাকায় শীব বাড়িতে, দ্বিতীয় জানাজা পল্টনের পলয়েল মার্কেটের সামনে, তৃতীয় ও চতুর্থ দফায় জানাজা তার নীজ গ্রামের বাড়ির সামনে একটি মাঠে আসর বাদ জানা সম্পন্ন হওয়ার পর পারিবারিক কবরস্থানে দাফন সম্পন্ন করা হয়। জানাজায় মরহুমের রুহের মাগফিরাত কামনায় দোয়া চেয়ে বক্তব্য রাখেন মতলব পৌর সভার সাবেক মেয়র ও মতলব দক্ষিন উপজেলা বিএনপির সভাপতি এনামুল হক বাদল, মতলব দক্ষিন উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান এমএ শুকুর পাটোয়ারী, খাদের গাঁও ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান ও মতলব দক্ষিন উপজেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক মিজানুররহমান সরকার, খাদের গাঁও ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান রিপন মীর, মতলব পৌর বিএনপির সভাপতি সোয়েব সরকার,মরহুমের বড় ভাই বিশিষ্ট ব্যবসায়ী নুরুল ইসলাম, খাদের গাঁও ইউনিয়ন বিএনপির সভাপতি নজরুল ইসলাম প্রমূখ। জানাজা অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন মতলব দক্ষিন উপজেলা পরিষদের সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান ও মতলব দক্ষিন উপজেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক শফিকুল ইসলাম সাগর। এ ছাড়া উপস্থিত ছিলেন নায়ের গাঁও দক্ষিণ ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান ফজলুল হক, উপাদী দক্ষিণ ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান শহিদুল্লাহ,উপজেলা বিএনপির সাবেক সভাপতি বিল্লাল হোসেন মৃধা, এমদাদ হোসেন, পৌর বিএনপির সাবেক আহবায়ক মোজাম্মেল হক প্রধান, মতলব পৌর যুবদলের সভাপতি মজিবুর রহমান সরকার, উপজেলা বিএনপির যুগ্ন সাধারন সম্পাদক মিরান হোসেন মিয়াজী, কেন্দ্রীয় ছাত্র দল নেতা আশ্রাব বাবু, মতলব ডিগ্রি কলেজের সাবেক ভিপি জাকির ও আতাউর রহমান সহ বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের নেত্রী বৃন্দ, ব্যবসায়ী বৃন্দ ও বিভিন্ন শ্রেনী পেশার মানুষ জানায় অংশ গ্রহন করেন। জানাজায় হাজার হাজার মানুষের ঢল। এটি একটি দৃষ্টান্ত স্হাপন করে গেলেন। শুধু তাই নয়, মরহুমের লাশ দেখতে এসে মানুষের আহাজারিতে আকাশ বাতাস বারি হয়ে শোকের ছায়া নেমে আশে। জানাজায় অংশ গ্রহন কারীগন মরহুমের মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করেন ও তার শোক সন্তপ্ত পরিবার পরিজনদের প্রতি গভীর সমবেদনা জানান।

Leave a Reply