কবিতাঃ আকাশ ও মাটির মাঝে শূন্যতা

0
67

লেখক: মোঃ সইনুল রহমান আকাশ ,

কৃঞ্চ গহবর যেন এতটাই বিস্তৃত,
তারকাগুলি তেমন শরিষার মত।
আকাশ ও মাটির মাঝে শূন্যতা,
কখনও পাবে কি তারা পূর্ণতা?
——
আকাশ নিচের দিকে মাটির পানে,
মাটি উপরের দিকে প্রাণের টানে।
সূর্যের কিরণে মাটি ফেটে চৌচির,
কখনও আকাশের কান্নায় শিশির।
—–
আকাশ ও মাটির বিরহ ব্যবধান,
নীল আকাশ পায়না অক্সিজেন।
সবুজের সমাহার মাটির পৃথিবী,
সূর্যের তাপে জীবন পায় সব-ই।
—–
প্রথম মহা পুরুষ শূন্যতায় চিন্তিত,
পাঁজরের হাড়ে হওয়াও নিশ্চিত।
জান্নাতের সেই মখমল কুঞ্জবনে,
কাটাত সময় আপনমনে দু’জনে।
—–
অদৃশ্য মহা শূন্যতায়, পেল শাস্তি,
জান্নাত থেকে ছিন্ন,হারালো স্বস্তি।
দু’জনের মাঝে বিশাল ব্যবধান,
হবে কি এর কোন সুস্থ সমাধান?
——
কাঁদিল চিত্ত ভেঙ্গে গাঁথিল মালা,
মিটিল আরাফাতে মনের জ্বালা।
মানুষের মাঝে মানুষের সফলতা,
তবুও দু’জনের মাঝে মহাশূন্যতা।
——
দু’জনের পাশাপাশি-ই অবস্হান,
কেউ স্বপ্নে বিভোর,কেউ অজ্ঞান।
দুর থেকে মনে হয় নীল আকাশ,
মাটিতে ফেলেছে স্বস্তির নিঃশ্বাস।
——-
এতো কাছে থেকেও মন চিনেনা,
পাশেই দু’টি কবর,কেউ জানেনা।
ঘনিষ্ঠ বন্ধুত্বের মাঝে যেন শত্রুতা,
খুব কাছা থাকলেও বেশ শূন্যতা।
——
দুঃখের মাঝেও ম্লান মুখে হাসি,
সুখের শূন্যতায় দুঃখের বাশি।
হৃদয়ে রক্ত ক্ষরণের ভালবাসা,
পাইতে চাইলেও মিটেনা আশা।
——
সংসারে এক হাঁড়িতেই রান্না,
তার পরেও মনে চাঁপা কান্না।
কোথায় যেন হারিয়েছে সুখ,
কেউ কারো দেখতে নারি মুখ।
——
সজন হারিয়ে কারো শূন্যতা,
চক্ষু সাগরে যেন অশ্রু স্বল্পতা।
সন্তান হারানো মায়ের বেদনা,
কলিজা ছেড়া ভিষণ যন্ত্রণা!
—–
কি দেখে দু’টি মনের আগমন!
অনেক বাঁধা পেরিয়েও দুশমন।
অভিমান ও দুশমনি পরে মমতা,
হৃদয়ে মিলিলেও মাঝে শূন্যতা।

Leave a Reply