রাণীশংকৈলে অপহরণ-ধর্ষণ ও শ্লীলতাহানির মামলায় প্রেফতার-২

0
290

রাণীশংকৈল ( ঠাকুরগাঁও) প্রতিনিধি।
ঠাকুরগাঁওয়ের রাণীশংকৈল উপজেলার ভান্ডারা গ্রামের নজরুল ইসলামের ছেলে মাসুম আলী (২৫) ও একই গ্রামের আজিজুর রহমানের ছেলে নুর ইসলাম (২৫) কে পুলিশ পৃথক অপহরণ-ধর্ষন ও শ্লীলতাহানি মামলায় গত ২৫ আগস্ট মঙ্গলবার রাতে গ্রেফতার করে।

থানা সুত্রে জানা গেছে উপজেলার কাশিপুর ঝাপরটলা গ্রামের আব্দুর সামাদের মেয়ে (১৩) কে প্রায় ৩ মাস আগে মাসুম আলী সম্পর্কের জের ধরে ঝাপরটলা স্কুলের পাশে নির্জন স্থানে ঐ কিশোরীকে নিয়ে শ্লীলতাহানির চেষ্টা চালায়। ঐ মেয়েটির চিৎকারে লোকজন ছুটে এলে মাসুম পালিয়ে যায়।

এঘটনায় তার বাবা আঃ সামাদ বাদী হয়ে রাণীশংকৈল থানায় একটি মামলা দায়ের করেন।

অপরদিকে উপজেলার ভান্ডারা গ্রামের আজিজুর রহমানের ছেলে নূর ইসলাম পার্শবর্তী হরিপুর উপজেলার পাচঘরিয়া গ্রামের আব্বাস আলীর মেয়ে (১২)কে পূর্ব পরিচয়েরর সূত্র ধরে মীরডাঙ্গী ব্রীজে ডেকে নেয়। তাকে সে ফুসলিয়ে ঢাকা নিয়ে যায়।

কয়েকদিন পর ঢাকা থেকে ঐ মেয়েকে সঙ্গে নিয়ে নূর ইসলাম পশ্চিম বনগাঁ মাদ্রাসার কাছে নামিয়ে দিয়ে পালিয়ে যায়। মেয়েটি নিজ বাড়িতে ফিরে গেলে তার বাবা আব্বাস আলী বাদী হয়ে জেলা আদালতে অপহরণ ও ধর্ষণ মামলা দায়ের করেন।

এ দুই মামলার প্রেক্ষিতে পুলিশ গত ২৫ আগষ্ট মঙ্গলবার রাতে মাসুম আলী ও নূর ইসলামকে গ্রেফতার করে। পরদিন ২৬ আগষ্ট বুধবার তাদেরকে জেলহাজতে প্রেরণ করা হয়।
মামলা দুটির তদন্ত কর্মকর্তা এসআই তারেকুল তৌফিক ও এসআই আব্দুল মোমীন এ তথ্য জানান।

রানীশংকৈল থানান ওসি তদন্ত কর্মকর্তা আব্দুল লতিফ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেন।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে