বর্ষাসাটিকা চীবরদান ও শোক সভায় বক্তব্য রাখছেন বক্তারা

0
75

বর্ষাসাটিকা চীবরদান ও শোক সভায় বক্তারা
সর্বজীবের প্রতি অহিংসা বা মৈত্রী প্রদর্শন করাই হচ্ছে বুদ্ধের মূল বাণী

আজ ২২ আগস্ট সকাল ১০ টায় মোমিন রোডস্থ মহানগর সার্বজনীন বৌদ্ধ বিহারের উদ্যোগে বর্ষাসাটিকা চীবরদান ও বিহার পরিচালনা ও উন্নয়ন কমিটির সহ-সভাপতি জয়ন্ত বড়ুয়া বাবলু সহ বৈশ্বিক মহামারীতে কালগত জ্ঞাতিগণের পারলৌকিক মঙ্গলকামনার্থে পূর্ণদান অনুষ্ঠান বিহার অধ্যক্ষ ভদন্ত বজিরানন্দ মহাথের’র সভাপতিত্বে সূর্য্যসেন বড়ুয়া শংকুর সঞ্চালনায় রাজীব বড়ুয়া রাজুর পঞ্চশীল প্রার্থনার মধ্যদিয়ে অনুষ্ঠানের কার্যক্রম শুরু করা হয়। উক্ত ধর্মীয় অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন কাতালগঞ্জস্থ নবপন্ডিত বিহারের বিহারাধ্যক্ষ অধ্যাপক উপানন্দ মহাথের। অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ভদন্ত রতনান্দ থের, ভদন্ত সুমনান্দ থের, প্রজ্ঞানন্দ ভিক্ষু। উক্ত অনুষ্ঠানে শ্রদ্ধা নিবেদন করে বক্তব্য প্রদান করেন জামাল খান ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক মিথুন বড়ুয়া, বিহার পরিচালনা কমিটির উপদেষ্টা বিনয় ভূষণ বড়ুয়া, স্বদেশ কুসুম চৌধুরী, বিহার পরিচালনা কমিটির সভাপতি অলক বড়ুয়া বিটু, সহ-সভাপতি উত্তম কুমার বড়ুয়া, প্রণবরাজ বড়ুয়া, বিহার পরিচালনা কমিটির সম্পাদক মন্ডলীর সদস্য তাপস কুমার বড়ুয়া, প্রশান্ত কুমার বড়ুয়া, প্রকৌশলী পলাশ বড়ুয়া, রেবা বড়ুয়া, জুয়েল বড়ুয়া, রেখা বড়ুয়া, শুভ্র মনিয়াম বড়ুয়া পাপ্পা, পরিতোষ বড়ুয়া রানা, শুভ্র চৌধুরী প্রমুখ।
প্রধান অতিথি বলেন, মা যেমন তার একমাত্র পুত্রকে নিজ জীবনের বিনিময়ে রক্ষা করেন, সেরূপ জগতের সকল প্রাণীর প্রতি অপ্রমেয় মৈত্রী পোষণ করুন। একমাত্র ভগবান বুদ্ধই আবিস্কার করেন মানুষের দুঃখ-মুক্তির অভ্রান্ত পথ জন্ম-জরা-ব্যাধি-মৃত্যুহীন পরম সুখ-শান্তিময় নির্বাণ। এই নির্বাণ বা বিমোক্ষ লাভের উদ্দেশ্যে মহাজ্ঞানী বুদ্ধ প্রবর্তন করলেন দু’অন্ত বর্জিত মধ্যম পন্থা সেখানে থাকবে না ভোগ লালসার তৃপ্তি সাধন, থাকবেনা কঠোর তপশ্চর্যা বা কৃচ্ছ সাধন। এ সবই হল বুদ্ধগণের অনুশাসন। বৈশ্বিক মহামারীতে কালগত জ্ঞাতীগণের উদ্দেশ্যে পুণ্যদান করা হয়।

Leave a Reply