পরিবহণ ভাড়া নিয়ে সীতাকুণ্ড উপজেলা ছাত্রলীগের আহবায়ক শায়েস্তা খানের অভিমত

0
85

মোঃ আশরাফ উদ্দীন, সীতাকুন্ড
সাম্প্রতি পরিবহণ ভাড়া নিয়ে যেই নৈরাজ্য(বিশেষ করে ৮ নং বাসে)সেইটা আপনাদের লেখনির মাধ্যমে,এবং বিভিন্ন তথ্য উপাত্ত ও বাস্তবতার নিরিখে আমাদের দৃষ্টিগোচর হয়েছে।।

আপনারা অবগত আছেন,বাংলাদেশে পরিবহণ সেক্টরের নৈরাজ্য দীর্ঘদিন যাবত,তারই ধারাবাহিকতায় সীতাকুণ্ডে ও চলমান।।

বিষয়টি সবার পাশাপাশি উপজেলা আওয়ামীলীগের সম্মানিত সভাপতি আবদুল্লাহ আল বাকের ভুঁইয়া মহোদয়ের ও দৃষ্টিগোচর হয়,এবং তাৎক্ষণিক উনি ৮ নং রুটের সাধারন সম্পাদক কাশেম ভাইয়ের সাথে মোবাইলে কথা বলেন এবং বিষয়টি দ্রুত নিষ্পত্তি করার জন্য আমাকে নির্দেশনা প্রদান করেন।।

তারই ফলশ্রুতিতে ওইদিন সন্ধায় আমরা মালিক শ্রমিক নেতাদের সাথে আলোচনা করি এবং তারা সরকারের নির্ধারিত ভাড়া আদায় করবেন বলে আমাদের আশ্বস্ত করেন।।

পরদিন বিভিন্ন জায়গা থেকে আমাদের কাছে অভিযোগ আসলে, আমি নিজেই আমার ছাত্রলীগের টিম নিয়ে বাসস্টান্ডে অভিযান পরিচালনা করি এবং ঘটনার সত্যতা পাওয়া বিভিন্ন গাড়ির চাবি জব্দ ও অতিরিক্ত ভাড়া ফেরত দিতে বাধ্য করি।এরপর বাসের ড্রাইবার ও হেলপারদের ডেকে আমাদের অবস্থানের কথা পুনব্যাক্ত করি,ভবিষ্যতে আর অতিরিক্ত ভাড়া নিবেন না বলে কথা দেওয়ায় চাবি ফেরত দিয়ে থাকি।।

প্রিয়,সীতাকুণ্ডের জনগণ, পরিবহণ সেক্টরের এই নৈরাজ্য বন্ধ করতে হলে আপনাদের সচেতনতা অত্যান্ত জুরুরী,আপনাদেরকে ও এগিয়ে আসতে হবে।ছাত্রলীগ তাদের নিয়মতান্ত্রিক আন্দোলন চালিয়ে যাবে,এবং আপনাদের পাশে সব সময় থাকবে।।

দীর্ঘদিনের একটা নৈরাজ্য,হয়তো একটু সময় লাগবে,তবে ভরসা রাখুন দিনশেষে আমরাই জিতবো।

Leave a Reply