কচুয়ায় বড় হায়াতপুর হতে নিখোঁজ হওয়ার ৪৮ ঘন্টার পর বাসাবাড়িয়া গ্রামের একটি বিল হতে প্রবাসীর মেয়ে মিশুর লাশ উদ্ধার

    0
    106

    কচুয়ায় ১৪ বছরের জান্নাতুল ফেরদৌস মিশু নামে এক স্কুল শিক্ষার্থীর নিখোঁজ হওয়ার ৪৮ ঘন্টা পরে মৃতদেহ খোঁজে পাওয়া গেছে।

    কচুুয়া উপজেলার ৯নং কড়ইয়া ইউনিয়নের বাসাবাড়িয়া গ্রামের একটি বিল থেকে ০২/০৮/২০২০ইং রোজ বৃহস্পতিবার সকাল ১১:৩০ মিনিটের সময় মেয়েটির মৃত দেহ উদ্ধার করা হয়।

    মৃত মিশু (১৪) বড় হায়াতপুর গ্রামের আবু হানিফ মিয়ার মেয়ে।

    মিশু স্হানীয় চাদঁপুর এম.এ খালেক মেমোরিয়াল হাই স্কুল এন্ড কলেজের নিয়মিত শিক্ষার্থী।

    মিশুর পারিবারিক সূত্রে জানাযায়, মেয়েটি শুক্রবার দুপুরে বাড়ির পাশের রাস্তায় ঘাস কাটতে যায়।

    ঘাস কাটতে যাওয়ার ২/৩ ঘন্টায় মেয়েটি বাড়ীতে না ফেরায়, বাড়ির লোকজন তাকে খোঁজাখোঁজি শুরু করে।

    মেয়েটির পরিবার ঘাস কাটার স্হলে গেলে, সেখানে গিয়ে মেয়েটির ওড়না,কাঁচি এবং ওঁড়া দেখতে পায়,কিন্তু মেয়েটিকে পাওয়া যায়নি। এমন কী ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরি দল এসে ও ঘটনাস্হল হদিস পাওয়া যায়নি।

    এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে কচুয়া থানায়, একটি অভিযোগ করা হয়েছে।

    মিশুর বাবা আবু হানিফ হলেন,কচুয়া উপজেলার একজন প্রবাসী রেমিট্যান্সযোদ্ধা, মৃত শিশুর বাবার ফেইসবুক স্ট্যাটাস দিয়ে,প্রিয় প্রবাসী ভাইদের সাহায্য কামনা করেন।

    কচুয়া উপজেলা প্রশাসন থেকে সপ্তাহ খানেক আগে এক প্রবাসীর বিরুদ্ধে ডিজিটাল আইনে মামলা ও তার পরিবারকে হয়রানি করার পর এবার আবারোও প্রবাসীর মেয়ের লাশ মিললো বিলের জনমনে।

    বর্তমানে ঐ গ্রামের প্রবাসী পরিবার গুলোর মাঝে এখন আতংক বিরাজ করছে।

    Leave a Reply