প্রকৌশলীকে লাঞ্চিত করার অভিযোগে কচুুয়া চেয়ারম্যান সাময়িক বরখাস্ত।

0
149

কচুুয়া প্রতিনিধিঃ
চাদঁপুর শিক্ষা প্রকৌশলী বিভাগের উপ-সহকারী প্রৌকশলী নুর আলমকে শারীরিক ভাবে লাঞ্চিত করার অভিযোগে উপজেলা চেয়ারম্যান শাহাজাহান শিশিরকে সাময়িক ভাবে বরখাস্ত করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার ২৩শে জুলাই স্হানীয় সরকার বিভাগের উপসচিব মোহাম্মদ জহিরুল ইসলাম স্বাক্ষরিত প্রজ্ঞাপনে এই তথ্য জানাযায়, যার স্বারক নং ৪৬.০০.০০০০.০৪৫.২৭০০২.২০-২৯৯। তারিখ-২৩/০৭/২০২০ খ্রিঃ

প্রজ্ঞাপনে উল্লেখ করা হয়,উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান শাহাজাহান শিশিরের কর্মকান্ড উপজেলা পরিষদের কর্মরত কর্মচারীদের মধ্যে হতাশা এবং ক্ষোভের সৃষ্টি করতে পারে যা সার্বিক ভাবে উপজেলা পরিষদের কার্যক্রম বাস্তবায়নের অচলাবস্হা সৃষ্টি ও জনস্বার্থে মারাত্নক ভাবে বিঘ্নিত হওয়ার আশংকাসহ অন্যান্য উপজেলা পরিষদের বিরুপ প্রভাব ফেলতে পারে,সেহেতু সরকার জনস্বার্থে তাকে তার সেই পদ হতে সাময়িক ভাবে বরখাস্ত করার সিদ্ধান্ত করা হয়েছে।

প্রজ্ঞাপনে আরোও উল্লেখ করা হয়,উপজেলা পরিষদ আইন,১৯৯৮ এর ১৩ (খ) ধারা অনুসারে চাদঁপুর জেলা কচুুয়া উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যানেরর পদ হতে সাময়িক বরখাস্ত করা হল,এবং কচুুয়া উপজেলা প্যানেল চেয়ারম্যান -১ কে উপজেলা পরিষদের কাজ পরিচালনার জন্য পরিষদের অার্থিক ক্ষমতা প্রদান করা হলো।

জানাযায়, গত শনিবার শিক্ষা প্রৌকশলী অধিদপ্তরের উপ-সহকারী প্রকৌশলী নুর আলমের উপর হামলার ঘটনায় কচুুয়া থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে।

শনিবার রাতে প্রৌকশলী নুর আলম বাদী হয়ে উপজেলি চেয়ারম্যান শাহাজাহান শিশিরকে প্রধান আসামী করে, এরই সাথে থাকা ইমাম হোসেন ও জহির হোসেন সহ ১৫/২০ জনকে অজ্ঞাতনামা করে আসামী করা হয়েছে।

Leave a Reply