‘নেপথ্যচারীদের শক্ত হাতে মোকাবিলা করা হবে’

0
759
ফাইল ছবি

শিক্ষার্থীদের আন্দোলনকে ভিন্নখাতে প্রভাহিত করতে পেছনে থেকে যারা কলকাঠি নাড়াচ্ছে তাদেরকে শক্তহাতে মোকাবিলা করা হবে বলে সংসদীয় কমিটিকে জানিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন। একইসঙ্গে তিনি জানান, আন্দোলনের বিষয়ে অপপ্রচার ঠেকাতে পুলিশের পক্ষ থেকে ফেসবুকসহ সোশ্যাল মিডিয়া বন্ধের কথা বলা হয়েছিল। তবে প্রধানমন্ত্রীর সম্মতি না থাকায় বিষয়টি বাস্তবায়ন করা হয়নি। এসময় কমিটি শিক্ষার্থীদের আন্দোলন থেকে ঘরে ফেরাতে শিক্ষকদের মোটিভেশন করার সুপারিশ করা হয়।

সংসদ ভবনে আজ অনুষ্ঠিত স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির বৈঠকে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী এ তথ্য জানান। বৈঠক সভাপতিত্ব করেন কমিটির সভাপতি টিপু মুনশি। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন, মো. মোজাম্মেল হোসেন, মো. ফরিদুল হক খান, আবুল কালাম আজাদ, আবু সাঈদ আল মাহমুদ স্বপন, ফখরুল ইমাম ও কামরুন নাহার চৌধুরী অংশ নেন।

কমিটি সূত্রে জানা যায়, বৈঠকে সরকার দলীয় এমপি আবু সাঈদ আল মাহমুদ স্বপন বিষয়টি উত্থাপন করেন। তিনি বলেন, আমরা টানা ১০ বছর ক্ষমতায় আছি। শেষ সময় এ ধরনের ঘটনা ঘটতে পারে, এমন আশঙ্কা ছিল। এছাড়া বাস-শ্রমিক ও ড্রাইভারদের ওপর জনগণের ক্ষোভ রয়েছে। কাজেই এ ধরনের ঘটনায় গোয়েন্দা তথ্য থাকা উচিত ছিল।

এসময় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন বলেন, সরকার চাইলে এ আন্দোলন দমন করা কোন বিষয় নয়। এর থেকে বড় আন্দোলন মোকাবিলার অভিজ্ঞতা আমাদের রয়েছে। তবে কোমলমতি শিক্ষার্থীদের কথা বিবেচনা করে বিষয়টি ধৈর্য সহকারে হ্যান্ডল করার বিষয়ে প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা রয়েছে। এসময় সংসদীয় কমিটির সদস্যরা সরকারের এ অবস্থানকে স্বাগত জানায়।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী কমিটিকে জানান, আন্দোলনকে দীর্ঘ করা ও ভিন্ন খাতে প্রবাহিত করতে এবার মেয়েদের ব্যবহার করা হয়েছে। বিকৃত বক্তব্য সম্বলিত ব্যানার ওদের হাতে ধরিয়ে দেওয়া হয়েছে। এসবের নেপথ্যে জামায়াত-শিবিরের ইন্দনের প্রমাণ পাওয়া গেছে। বৈঠকে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য আমির খসরু মাহমুদের ফোনালাপ ও তার বিরুদ্ধে মামলা দায়েরের বিষয়টিও আলোচনা হয়েছে।

বৈঠকের কমিটির সভাপতি টিপু মুনশি সাংবাদিকদের বলেন, ঘটনার শুরুতে একটা ইমোশন ছিল। কিন্তু এখন তা অন্যখাতে প্রবাহিত করার দূরভিসন্ধি করা হচ্ছে। ঘটনার সঙ্গে একটি গোষ্ঠী জড়িত হয়ে পড়েছে তা এখন প্রমাণিত বলে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী কমিটিকে জানিয়েছেন। তিনি বলেছেন, ‘আন্দোলনের পেছনে থেকে যারা কলকাঠি নাড়াচ্ছে, তাদেরকে শক্ত হাতে মোকাবিলা করা হবে।’

সংসদের গণসংযোগ বিভাগ জানায়, ১৫টি বৈদেশিক মিশনের পাসপোর্ট ভিসা উইং থেকে প্রতিমাসে আর্থিক হিসাব স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে জমা দেওয়ার সুপারিশ করে কমিটি। এছাড়া র‌্যাবের শূণ্য পদে দ্রুত জনবল পদায়নের এবং মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের জনবল নিয়োগের জন্য সুপারিশ করা হয়।
বৈঠকে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের জননিরাপত্তা বিভাগের সচিব, সুরা সেবা বিভাগের সচিব, মহা-পুলিশ পরিদর্শক, কোস্টগার্ডের মহাপরিচালক, আনসার ও ভিডিপির মহাপরিচালক, র‌্যাবের অতিরিক্ত মহাপরিচালকসহ সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

বিডি প্রতিদিন

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে