দিনাজপুরে নতুন করে একজন করোনা শনাক্ত, জেলায় মোট ১২১ জন, সুস্থ-১৬, মৃত-১

0
40

মোঃ মঈন উদ্দীন চিশতী, দিনাজপুর প্রতিনিধিঃ

গত ২৪ ঘন্টায় দিনাজপুরে নতুন করে চিরিরবন্দর উপজেলায় ১ জন কোভিড -১৯ পজিটিভ শনাক্ত এবং নতুন করে বোচাগঞ্জ উপজেলায় ১ জন সুস্থ হয়েছে। জেলার মোট করোনা রোগী – ১২১ জন, মোট সুস্থ ১৬ জন, মৃত ১ জন।

শনিবার (২৩ মে) সন্ধায় দিনাজপুর জেলা সিভিল সার্জন ডা. আব্দুল কুদ্দুছ এ বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

দিনাজপুরে গত ২৪ ঘন্টায় দিনাজপুর এম আব্দুর রহিম মেডিক্যাল কলেজের আর টি পিসি আর ল্যাব হতে ৪২ টি নমুনা ফলাফলের রিপোর্ট পাওয়া গেছে। এর মধ্যে ১ টি নমুনা ফলাফলের রিপোর্ট পজিটিভ ও ৪১ টি নমুনা ফলাফলের রিপোর্ট নেগেটিভ পাওয়া গেছে।

দিনাজপুর জেলার ১৩টি উপজেলায় করোনা রোগীর সংখ্যা ১২১ জন, সুস্থ হয়েছে ১৬ জন, মৃত ব্যক্তির সংখ্যা ১ জন। আক্রান্তদের মধ্যে ৮৯ জন পুরুষ, ২৬ জন মহিলা ও ৬ জন শিশু রয়েছে। আক্রান্তদের মধ্যে সদরে শিশুসহ ৩১ জন(সুস্থ ৪ জন ),বিরলে ১১, নবাবগঞ্জে ৭ জন (সুস্থ ৩ জন), ফুলবাড়ীতে ৪ জন (সুস্থ ১ জন), পার্বতীপুরে ৭ জন (সুস্থ ২ জন), বোচাগঞ্জে ৮ জন (সুস্থ ২ জন), ঘোড়াঘাটে ১৯ জন(সুস্থ ১ জন) , কাহারোলে ৮ জন (সুস্থ ১ জন) , হাকিমপুরে ২ জন(সুস্থ ১ জন) , চিরিরবন্দর ২ জন, বিরামপুর ৬ জন, বীরগঞ্জ ১০ জন, খানসামায় ৬ জন। তাদের মধ্যে ৯৩ জন রয়েছে হোম আইসোলেশনে ও ০৩ জন রয়েছে প্রাতিষ্ঠানিক আইসোলেশনে, হাসপাতালে রয়েছে ৮ জন,মৃত্যুবরণ করেছেন ১ জন।

শনিবার (২৩ মে) দিনাজপুর জেলার অদ্যাবধি ল্যাবরেটরীতে প্রেরিত নমুনা সংখ্যা ২৬৮৪ টি, এ পর্যন্ত ২৪৯৯ টি নমুনা ফলাফল পাওয়া গেছে, এর মধ্যে জেলায় মোট করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছে ১২১ জন, এর মধ্যে মৃত ১ জন এবং সুস্থ হয়ে ছাড় পত্র পেয়েছে ১৬ জন (সদর ৫, ফুলবাড়ী ১, নবাবগঞ্জ ৩, পার্বতীপুরে ২,কাহারোল ১ জন, বোচাগঞ্জ ২ জন,হাকিমপুর ১ জন, ঘোড়াঘাটে ১ জন)।

দিনাজপুর জেলায় গত ২৪ ঘন্টায় হোম কোয়ারেন্টাইনে প্রেরিত হয়েছে ৫৩ জন। বর্তমানে হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকা সর্বমোট ৮১৪৭ জনের মধ্যে ৬০৩৬ জনকে সুস্থ হওয়ায় অব্যাহতি দেয়া হয়েছে। বর্তমানে হোম কোয়ারেন্টাইনের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ২১১১ জন।

উল্লেখ্যঃ

দিনাজপুরের চিরিরবন্দরে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত আরও একজন রোগী শনাক্ত হয়েছে।

এ নিয়ে উপজেলায় আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়ালো ২ জনে।

নতুন আক্রান্ত ব্যক্তির বাড়ি ১নং নশরতপুর ইউনিয়নের রানীরবন্দর এলাকায়। আক্রান্ত ব্যক্তির বয়স ৩৯ বছর। জানা যায় তিনি ঢাকা ফেরত ছিলেন।

চিরিরবন্দর উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. আজমল হক জানান, জ্বর-কাশিতে আক্রান্ত ওই ব্যক্তি দিনাজপুর হাসপাতালের ল্যাবে গিয়ে করোনাভাইরাসের পরীক্ষার জন্য নমুনা সংগ্রহ করলে আজকের রিপোর্টে শনাক্ত প্রমাণ হয়।

প্রাণঘাতী এ ভাইরাসের সংক্রমণ রোধে শনিবার সন্ধ্যার পর থেকে আক্রান্ত ব্যক্তির বাড়ি লকডাউন ঘোষণা করেছেন উপজেলা প্রশাসন।

এছাড়া এর আগে যিনি করোনায় শনাক্ত হয়েছেন তার বাড়ি বড় বাউল জিনাহার এলাকায়। স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স সূত্রে জানাযায়, তিনি বর্তমানে করোনা থেকে সুস্থ্য হয়েছেন।

Leave a Reply