চাঁদপুর জেলার সকল মার্কেট-দোকান পাট বন্ধ,খুলছেনা ঈদের আগে,জেলা প্রশাসক মাজেদুর রহমান।

0
67

মোঃ হারুনুর রশিদ,চাঁদপুর-কচুয়া প্রতিনিধিঃ চাঁদপুরে পরবর্তী নির্দেশনা না দেয়া পর্যন্ত শপিংমল,মার্কেট, দোকান পাট বন্ধ রাখার নির্দেশ দিয়েছে জেলা প্রশাসন। শনিবার রাতে জেলা প্রশাসক মোঃমাজেদুর রহমান খান এর নিজস্ব ফেইসবুক আইডিতে এ সংক্রান্ত একটি ঘোষনা দেন। এতে বলা হয়, চাঁদপুরের জেলার সাধারণের অবগতির জন্য জানানো যাচ্ছে যে,চাঁদপুর জেলার মহামারী প্রাণঘাতি করোনাভাইরাসেরর প্রার্দুভাব হঠাৎ বেড়ে যাওয়ার কারনে, জেলা করোনাভাইরাস প্রতিরোধ কমিটির সিদ্ধান্ত মোতাবেক সকাল ভোর ৬ টা থেকে পরবর্তি নির্দেশনা দেয়া পর্যন্ত সকল, শপিংমল,বিপনী বিতান,মার্কেট, দোকানপাট ব্যবসা কেন্দ্র,আবশ্যিক ভাবে বন্ধ থাকবে। একই সাথে ফুটপাতে বা প্রকাশ্য খোলা স্হানে হকার / ফেরীওয়ালা/অস্হায়ী দোকানপাট বসা সম্পূর্ণ নিষেধ থাকবে।তবে পূর্বের ন্যায়ে জরুরি পরিসেবা, অত্যাবশ্যকীয় নিত্যপ্রয়োজনীয় পন্য কাঁচা বাজার, খাবার দোকান, ঔষধের দোকান জরুরী পরিসেবা চালু থাকবে।মসজিদে আগত মুসল্লীদের নামাজ আদায়ের ক্ষেত্রে আবশ্যিক ভাবে স্বাস্হ্য পালন মুখে মাস্ক পরিধানসহ সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখার জন্য অনুরোধ করা হলো। এই আদেশ অমান্য কারীদের বিরুদ্ধে তাৎক্ষনিক আইনানুগ ব্যবস্হা গ্রহন করা হবে।এ সিদ্ধান্তের আগে শনিবার বিকেলে জেলার ব্যবসায়ী ও দোকান মালিক সমিতির নেতৃবৃন্দের সাথে বৈঠক বসেন,জেলা প্রশাসনের কর্মকর্তারা, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) মোহাম্মদ আব্দুল্লাহ আল মাজেদুর রহমান বলেন,চাঁদপুরের শপিং সেন্টার গুলো সাথে সম্মানিত ব্যবসায়ী গন বিপনী বিতান নিজের উদ্দ্যেগে বন্ধ রাখেন,সে জন্য জেলা প্রশাসকের পক্ষ থেকে মোটিভেশনাল সভার আয়োজন করা হয়েছিল। সভায় ব্যবসায়ী গন বিপনী বিতান ঈদের পূর্বে বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নেয়ায় জেলা প্রশাসক তাদেরকে অভিবাদন জানিয়েছেন।জেলার মালিক সমিতির সভাপতি মোস্তাক হায়দার চৌধুরী বলেন,জেলা প্রশাসন আমাদের ঈদের আগে মার্কেট বন্ধ রাখার অনুরোধ করেছেন।আমরা ব্যবসায়ীরা বিকেল সময় নিয়েছিলাম, সে সিদ্ধান্ত পরিবর্তন করে, চিন্তা ভাবনা করে তারা সিদ্ধান্ত নিয়েছেন ঈদের আগে মার্কেট গুলো খুলবেনা।

Leave a Reply