মতলব ব্রীজে বুদ্ধি প্রতিবন্ধী শাহীনকে উদ্ধার \ আজও পরিচয় মেলেনি

0
122

স্টাফ রিপোর্টার
মতলব ব্রীজ থেকে বুদ্ধি প্রতিবন্ধী মোঃ শাহীন (১৫) নামে একজনকে উদ্ধার করা হয়েছে। কিন্তু আজও বুদ্ধি প্রতিবন্ধী শাহীনের পরিচয় মেলেনি। শাহীনের পিতার নাম মোঃ বিল্লাল, মাতা পারভিন, গ্রাম ঃ সাহেবনগর, উপজেলা ভৈরব। কখনো বলে রায়পুর আবার কখনো বলে নরসিংদি। আশ্চর্য্য হলেও সত্য যে, অচেতন অবস্থায় পড়ে থাকা শাহীনকে করোনার ভয়ে কেউ ধরতে যায়নি। গত ২ মে সন্ধ্যা সাড়ে ৭টায় স্থানীয়রা মতলব ব্রীজে অসচেতন অবস্থায় পড়ে থাকতে দেখে মোঃ শাহীনকে। ব্রীজের উপর দিয়ে সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার মোঃ আহসান হাবীব মতলব উত্তরে যাওয়ার পথে স্থানীয় জনতার ভীড় দেখে গাড়ী থেকে নেমে দেখতে পায় অচেতন অবস্থায় বুদ্ধি প্রতিবন্ধী শাহীন নামে ১৫ বছরের এক কিশোর মাটিতে পড়ে আছে। পরে সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার মোঃ আহসান হাবীব মতলব দক্ষিণ থানার অফিসার ইনচার্জ স্বপন কুমার আইচকে খবর দিলে সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে ঘটনাস্থল থেকে শাহীনকে উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে। পরে শাহীনকে পরিস্কার পরিচ্ছন্ন করে খাবার দিলে সে সুস্থ্য হয়ে উঠে। কিন্তু তার পরিচয় সঠিকভাবে বলতে পারছে না। তার কথা অনুযায়ী ওসি ভৈরব, রায়পুর, নরসিংদিসহ বিভিন্ন থানায় ওয়ারলেসের মাধ্যমে ছবিসহ বার্তা জানান হয়। ঐ এলাকার চেয়ারম্যান ও মেম্বারদেরকেও বিষয়টি অবহিত করা হয়। পরবর্তীতে বিজ্ঞ জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট চাঁদপুর আদালতের অনুমতি গ্রহনপূর্বক বুদ্ধি প্রতিবন্ধী শাহীনকে শেখ রাসেল দুস্থ্য শিশু প্রশিক্ষণ ও পুর্নবাসন কেন্দ্র, ফারহাবাদ, হাটহাজারী, চট্টগ্রামে প্রেরন করা হয়। বর্তমানে শাহীন সেখানেই রয়েছে। যদি কোন সহৃদয়বান ব্যক্তি বুদ্ধি প্রতিবন্ধী শাহীনের পরিচয় জানেন বা চিনতে পারেন তাহলে উল্লেখিত ঠিকানায় যোগাযোগ করে নিতে পারবেন। মতলব দক্ষিণ থানার অফিসার ইনচার্জ স্বপন কুমার আইচ বলেন, করোনা সন্দেহে বুদ্ধি প্রতিবন্ধী শাহীনের কাছে ভয়ে কেউ যাচ্ছিল না। আমরা খবর পেয়ে ঘটনাস্থল থেকে তাকে উদ্ধার করে মতলব দক্ষিণ থানায় এনে শাহীনকে পরিচর্যা ও খাবার দিয়ে সুস্থ্য করে তুলি। বর্তমানে সে চট্টগ্রামের হাটহাজারী শেখ রাসেল দুস্থ্য শিশু প্রশিক্ষণ ও পুর্নবাসন কেন্দ্রে রয়েছে। শাহীনের আতœীয়-স্বজন, পিতামাতা আমাদের সাথে যোগাযোগ করলে শাহীনকে নিতে পারবেন।

Leave a Reply