ধর্মপাশার মধ্যনগর ইউনিয়নের এক ইউপি সদস্যের বিরুদ্ধে ত্রাণ বিতরণ কার্যক্রমে স্বজনপ্রীতির অভিযোগ এলাকাবাসীর

2
675

লিপু মজুমদার ধর্মপাশা(সুনামগঞ্জ) প্রতিনিধি

সুনামগঞ্জের ধর্মপাশা উপজেলার মধ্যনগর ইউনিয়নের এক ইউপি সদস্যের বিরুদ্ধে সরকারি ত্রাণ বিতরণ কার্যক্রমে স্বজন প্রীতি করেছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে । এ ঘটনায় ওই ইউপি সদস্যের বিরুদ্ধে গতকাল বৃহস্পতিবার বিকেলে মধ্যনগর ইউনিয়নের গলহা গ্রামবাসীর পক্ষে মো.মবিন নামের এক ব্যক্তি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার (ইউএনওর) কাছে লিখিতভাবে অভিযোগ করেছেন।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কাছে দেওয়া লিখিত অভিযোগ মো. মবিন উল্লেখ করেছেন, করোনাকালীন পরিস্থিতি মোকাবিলায় উপজেলার মধ্যনগর ইউনিয়নে সরকারিভাবে ত্রাণ বরাদ্দ পাওয়া যায়। মধ্যনগর ইউনিয়ন পরিষদের ৮নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য জামাল তালকুদার ওই ইউনিয়নের করোনা পরিস্থিতি মোকাবিলায় সরকারি ত্রাণ বিতরণের তালিকায় ওই ইউপি সদস্যের বাবা আবদুল খালেক,সহোদর ভাই মোফাজ্জল হোসেন তালুকদার,উজ্জ্বল মিয়া,মো.আবদুল কাইয়ুম তালুকদার, সহোদর ভাইয়ের স্ত্রী আবেদা আক্তার,শ্বশুর মো.ইদ্রিস আলী,শ্যালক মো.রবিউল আউয়াল, আপন চাচা জয়নাল আবেদীন, আপন বড় ভাইয়ের স্ত্রী রেনু আক্তার, চাচাতো ভাই রতন মিয়া,শহীদ মিয়া ও মো.আবু তাহের তালুকদারের নাম অন্তর্ভূক্ত করেন।

নিজের পরিবার ও আত্বীয় স্বজনদের নাম তালিকায় অন্তর্ভূক্ত করে সরকারি ত্রাণ পাইয়ে দেওয়ার ব্যবস্থা করেছেন। সরকারি আইন কানুনের কোনোরকম তোয়াক্কা না করে ক্ষমতার প্রভাব খাটিয়ে ওই ইউপি সদস্য এমনটি করেছেন। এতে প্রকৃত দরিদ্ররা বঞ্চিত হয়েছেন।

মধ্যনগর ইউনিয়নের ৮ নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য জামাল তালকুদার তাঁর বিরুদ্ধে আনা অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, আমাদের ইউনিয়নে একটি গ্রাম নিয়েই একটি ওয়ার্ড রয়েছে । এই ওয়ার্ডেই আমার শ্বশুর বাড়ী। তাছাড়া আত্বীয় স্বজন যদি গরীব হয় তাঁদের মধ্যে ত্রাণ বিতরণ করা যাবে না এমন কোনো বিধি নিষেধ নেই।যারা ত্রাণ পাওয়ার যোগ্য তাঁদেরকেই সরকারি ত্রাণ দেওয়া হয়েছে।

মধ্যনগর ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) চেয়ারম্যান প্রবীর বিজয় তালুকদার বলেন, গলহা গ্রামটি আমাদের ইউনিয়নের মধ্যে সবচেয়ে বড় একটি গ্রাম। জনসংখ্যাও বেশি । গ্রামবাসীর মধ্যে অভ্যন্তরীন কোন্দলের কারণেই হয়তোবা ইউএনও স্যারের কাছে এই অভিযোগ দেওয়া হয়েছে।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো.মুনতাসির হাসান বলেন, এ সংক্রান্ত একটি লিখিত অভিযোগ আমি পেয়েছি। অভিযোগটির তদন্ত করে এ ব্যাপারে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

2 মন্তব্য

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে