দিনাজপুরের সীমান্তে মাটির নিচ থেকে ২২৬৫ বোতল ফেনসিডিল ও ১৫ কেজি গাঁজা উদ্ধার করা হয়

0
71

মোঃ মঈন উদ্দীন চিশতী, দিনাজপুর প্রতিনিধিঃ
দিনাজপুর জেলার বিরামপুর উপজেলার সীমান্তে মাটির নিচে বস্তায় করে লুকিয়ে রাখা অবস্থায় ২২৬৫ বোতল ফেনসিডিল ও ১৫ কেজি গাঁজা উদ্ধার করেছে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি) দাউদপুর ক্যাম্পের সদস্যরা। তবে এ ঘটনায় কাউকে আটক করতে পারেননি তারা।

সোমবার ( ৪ মে) সকাল সাড়ে ৭টায় বিরামপুর সীমান্তের দক্ষিণ দাউদপুর কবিরাজ পাড়া এলাকা ভারতীয় ২৯০/২৭ এস পিলারের ৫০ গজ বাংলাদেশ অভ্যান্তর থেকে ওই মাদক উদ্ধার করা হয় বলে জানান তারা। ২০ ব্যাটালিয়নের অধিনায় লে. কর্নেল ফেরদৌস হাসান টিটো এ বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

বিজিবি দাউদপুর ক্যাম্প কমান্ডার নায়েব সুবেদার হেলাল উদ্দিন বলেন, ভারত থেকে ফেনসিডিলের একটি বড় চালান নিয়ে একদল মাদক কারবারি দেশের অভ্যন্তরে প্রবেশ করছে- নিজস্ব গোয়েন্দা সংস্থার এমন গোপন সংবাদের ভিত্তিতে ওই এলাকায় অবস্থান নেন বিজিবি। সকাল সাড়ে ৭টায় দক্ষিণ দাউদপুর কবিরাজ পাড়া এলাকায় একটি বাঁশঝাড়, গোবরের পালাসহ আশপাশের বেশ কিছু স্থানে তল্লাশি চালিয়ে মাটির নিচে পুঁতে রাখা অবস্থায় ২২৬৫ বোতল ফেনসিডিল ও ১৫ কেজি গাঁজা উদ্ধার করা হয়। তবে এর সাথে জড়িত কাউকে আটক করা যায়নি।

উদ্ধার হওয়া মাদক বিজিবি নির্ধারিত সিজার মূল্য ৯ লাখ ৫৮ হাজার ৫ শ টাকা। এগুলো ধ্বংসকরণের লক্ষ্যে জয়পুরহাট ২০ বিজিবি ব্যাটালিয়ন সদর দপ্তরে পাঠানো হবে বলে জানা যায়।

জয়পুরহাট ২০ ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক লে. কর্নেল ফেরদৌস হাসান টিটো বলেন, করোনা সংক্রমণের মধ্যে সীমান্তে মাদক কারবারিরা বিজিবির চোখ ফাঁকি দিয়ে ফেনসিডিল ও গাঁজা পাচারের চেষ্টা চালাচ্ছিল। কিন্তু বিজিবি সর্তক অবস্থানে থাকার কারণে তারা সফল হতে পারেনি। আমাদের চোরাকারবারিদের বিরুদ্ধে অভিযান অব্যাহত থাকবে। এ ঘটনার সঙ্গে জড়িতদের খুঁজে বের করে শাস্তির আওতায় আনা হবে।

Leave a Reply