দেশবাসী এক বুক আশা নিয়ে জাতীয় পার্টির দিকে তাকিয়ে: জিএম কাদের

0
630

জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান ও বিরোধী দলীয় উপনেতা গোলাম মোহাম্মদ কাদের এমপি বলেছেন, দেশের মানুষ এক বুক প্রত্যাশা নিয়ে জাতীয় পার্টির দিকে তাকিয়ে আছে। আমরা দেশের মানুষের প্রত্যাশা পূরণে রাজনীতি করছি। তিনি বলেন, অনেকেই ভেবেছিলো পল্লীবন্ধু হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের মৃত্যুর পরে জাতীয় পার্টি অস্তিত্ব সংকটে পড়বে। কিন্তু সবার আশংকা ভুল প্রমাণ করে জাতীয় পার্টি এখন ঐক্যবদ্ধ আছে। জাতীয় পার্টি অনেক শক্তিশালী। আগামী দিনে দলকে আরো শক্তিশালী করতে সবাই মিলে কাজ করতে হবে।

সোমবার দুপুরে ইনস্টিটিউশন অব ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ার্স বাংলাদেশ (আইডিইবি) মিলনায়তনে জাতীয় যুব সংহতি কেন্দ্রীয় কমিটি আয়োজিত সাধারণ সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান এসব কথা বলেন।
এ সময় তিনি অনূর্ধ্ব-১৯ ক্রিকেট বিশ্বকাপ চ্যাম্পিয়ন বাংলাদেশ দলকে অভিনন্দন জানান। এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, আশা করছি বিজয়ের এই ধারা অব্যাহত থাকবে। এ সময় ৪ এপ্রিল জাতীয় যুব সংহতির কেন্দ্রীয় কাউন্সিল অনুষ্ঠান করতে অনুমতি দেন জাতীয় পার্টি চেয়ারম্যান।

জাতীয় যুব সংহতির সভাপতি ও জাতীয় পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য আলমগীর সিকদার লোটন এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সাধারণ সভায় প্রধান অতিথির বক্তৃতায় জাতীয় পার্টি চেয়ারম্যান আরও বলেন, দলকে আরো গতিশীল করতে প্রেসিডিয়ামের সভায় কিছু গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত নেয়া হবে। এক নেতা একাধিক পদে থাকতে পারবেন কিনা সেটাও সিদ্ধান্ত নেয়া হবে। এছাড়া গণমানুষের আশা আকাঙ্ক্ষা পূরণে কর্মসূচি দেয়া হবে। প্রতিটি কর্মসূচি বাস্তবায়নে জাতীয় পার্টি নেতা-কর্মীদের নির্দেশ দেন তিনি।

নেতা-কর্মীদের সর্তক করে গোলাম মোহাম্মদ কাদের বলেন, রাজনীতিতে দুর্নীতি, ষড়যন্ত্র আছে। সকল ষড়যন্ত্র মোকাবেলা করে পল্লীবন্ধু হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের আদর্শ বাস্তবায়নে এগিয়ে যাবো আমরা। তিনি বলেন, জাতীয় পার্টিতে প্রকৃত ত্যাগী নেতা-কর্মীদের মূল্যায়ন করা হবে। প্রতিটি ক্ষেত্রে ন্যায় বিচার নিশ্চিত করা হবে। ওয়ার্ড, ইউনিয়ন ও উপজেলা পর্যায়ে প্রতিটি অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনকে শক্তিশালী সংগঠন হিসেবে গড়ে তুলতে নেতা-কর্মীদের প্রতি আহ্বান জানান জাতীয় পার্টি চেয়ারম্যান।

জাতীয় যুব সংহতির সাধারণ সম্পাদক ফকরুল আহসান শাহজাদা ও যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক মাহমুদ আলমের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত সাধারণ সভায় আরও বক্তব্য রাখেন জাতীয় পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য অ্যাড. রেজাউল ইসলাম ভুইয়া, জাতীয় যুব সংহতি কেন্দ্রীয় সহ-সভাপতি ড. সৈয়দ আবুল কাশেম, মো. দ্বীন ইসলাম শেখ, মঞ্জুরুল হক মঞ্জু, ঢাকা বিভাগীয় সাংগঠনিক সম্পাদক গাজী এমএ সালাম, চট্টগ্রাম বিভাগীয় সাংগঠনিক সম্পাদক অধ্যাপক একেএম নূরুল বশর সুজন, রাজশাহী বিভাগীয় সাংগঠনিক সম্পাদক শাহীন মোস্তফা কামাল ফারুক, বরিশাল বিভাগীয় সাংগঠনিক সম্পাদক একে মোস্তফা, সিলেট বিভাগীয় যুগ্ম-সাংগঠনিক সম্পাদক অ্যাড. শিবলী, আসাদুজ্জামান, ময়মনসিংহ জেলা সভাপতি আশরাফ হোসেন, সৈয়দপুর জেলা সভাপতি রোশন মহানামা, সভায় উপস্থিত ছিলেন, যুগ্ম-মহাসচিব আমির হোসেন ভুইয়া, সম্পাদক মণ্ডলীর সুলতান মাহমুদ, সমরেশ মন্ডল মানিক, মাসুদুর রহমান মাসুম, মো. জহিরুল ইসলাম মিন্টু, মো. শহিদ হোসেন সেন্টু, জাপা কেন্দ্রীয় সদস্য অ্যাড. আবু তৈয়ব, এমএ সোবহান, জাহাঙ্গীর আলম, জিয়াউর রহমান বিপুল, আরিফ রুবেল, যুবরাজ আহামেদ নাজিম, মোহাম্মদ উল্লাহ, আশিক মিয়া প্রমুখ।

সূত্র:বিডি-প্রতিদিন

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে