গাইবান্ধার বোনারপাড়া জংশনে রামসাগর ট্রেনপুনরায় চালুসহ বিভিন্ন দাবীতে ট্রেন অবরোধ

0
629

 উত্তরাঞ্চলের বহুল জনপ্রিয় মেইল ট্রেন রামসাগর এক্সপ্রেস পুনরায় চালুসহ বিভিন্ন দাবীতে গাইবান্ধার সাঘাটা উপজেলার বোনারপাড়া রেলওয়ে ষ্টেশনে বিক্ষোভ মিছিল প্রতিবাদ সমাবেশ ও লালমনিরহাট ও রংপুর রুটের ঢাকা গামী লালমনি এক্সপ্রেস ট্রেন ৩০ মিটিন অবোরোধ করে রাখা হয় ।

শনিবার ( ৮ ফ্রেব্রুয়ারি) এলাকাবাসীর ব্যানারে দুপুর ১২ টা ২২ মিনিট থেকে ১২ টা ৫২ মিনিট ঢাকাগামী লালমনি এক্সপ্রেস ট্রেনটি অবরোধ করে রাখা হয় । এসময় রেলওয়ের উদ্ধতন কর্মকর্তাদের আশ্বাসের ট্রেন অবরোধ তুলে নেয়া হয় এবং আগামী বুধবার ১ ঘন্টা ঢাকা গামী সকল ট্রেন অবরোধের কর্মসুচি ঘোষনা করা হয়।

অবরোধে উপজেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক নাছিরুল আলম স্বপন বলেন, গাইবান্ধা থেকে একটি আন্ত:নগর ট্রেন চালু এবং এই রুটে সকল বন্ধ ট্রেন চালুর দাবি করেন এবং রামসাগর ট্রেনটি চালু হলে গাইবান্ধাসহ কয়েক জেলার মানুষের দুর্ভোগ লাঘব হবে ।

আগামী বুধবারের মধ্যে ট্রেনটি চালু করা না হলে ঢাকা থেকে বোনারপাড়া ষ্টেশন হয়ে লালমনিরহাট ও রংপুর রুটের সকল ট্রেন বুধবার ১ ঘন্টা অবরোধ করে রাখা হবে।গাইবান্ধা জেলা মুক্তিযোদ্ধা ডেপুটি কমান্ডার গৌতম চন্দ্র মোদক বলেন,২০১০ সালের ডিসেম্বর মাসে চালু করা হয় আন্তঃনগর রামসাগর এক্সপ্রেস ট্রেনটি। প্রতিদিন সকাল ৬ টায় বোনারপাড়া রেলওয়ে জংশন স্টেশন থেকে দিনাজপুরের উদ্দেশ্যে ছেড়ে যেতো রামসাগর এক্সপ্রেস।

বোনারপাড়া জংশন থেকে গাইবান্ধা সদরের বাদিয়াখালী, ত্রিমোহিনী, গাইবান্ধা ও কুপতলা হয়ে কামারপাড়া, নলডাঙ্গা, বামনডাঙ্গা, হাসানগঞ্জ, পীরগাছা, অন্নদানগর,কাউনিয়া, মিরবাগ ও রংপুরের উপর দিয়ে বদরগঞ্জ দিয়ে পার্বতীপুর হয়ে দিনাজপুর পর্যন্ত মাত্র সাড়ে চার ঘণ্টায় চলাচল করতো রামসাগর। চালুর মাত্র ৫ মাসের মধ্যে ২০১১ সালের মে মাসে জনবল সংকটসহ বিভিন্ন কারণ দেখিয়ে হঠাৎ করে বন্ধ করে দেওয়া হয় রামসাগর এক্সপ্রেস। ফলে আবারও বিপাকে পড়তে হয় গাইবান্ধাসহ রংপুর ও দিনাজপুরের মানুষকে।

তাই প্রায় ৯ বছর ধরে বন্ধ থাকা রামসাগর এক্সপ্রেস পুনরায় চালুর দাবি করেছেন বক্তারা। উপজেলা আওয়ামী লীগ নেতা নাজমুল হুদা দুদ, মুক্তিযোন্ধা ওয়ারেছ আলী প্রধান , শাহ মোখলেছুর রহমান, প্রভাষক শাহ আলম ও ঠিকাদার শামছুল হক সরকার, উপজেলা শ্রমিক লীগ নেতা দেরৈায়ার হোসেন, মোজাহিদুল ইসলাম বকুল, সুজন মিয়াসহ এলাকার রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ, রেলওয়ে কর্মচারীসহ বিভিন্ন পেশাজীবি ও কয়েক হাজার সাধারন মানুষ এ কর্মসুচিতে অংশ নেন। রেলওয়ে লালমনির হাট ভিডিশনাল ট্রাফিক সুপারেন্টটেন (ডিটিআই) চন্দ দাস জানান, ট্রেন অবরোধের ঘটনা স্থলে আমি গিয়েছিলাম অবরোধকারীদের সাথে কথা হয়েছে । বিষয়টি উর্দ্ধতন কর্মকর্তাকে জানানো হবে ।

স্বজন ইসলাম, গাইবান্ধা প্রতিনিধি

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে