‘গরু খেলে বাঘেরও শাস্তি হওয়া উচিত’, হাস্যকর মন্তব্য ভারতীয় নেতার!

0
620

অনলাইন ডেস্ক: বিগত কয়েক বছর থেকেই ভারতীয় রাজনীতির কেন্দ্রবিন্দু হয়ে দাঁড়িয়েছে গরু। প্রাণীটিকে নিয়ে হাস্যকর এবং বিতর্কিত মন্তব্যের অভাব নেই। সেই তালিকায় এবার নাম জড়ালেন ভারতের গোয়ার বিধায়ক চার্চিল আলেমাও। তার দাবি, গরু খেলে বাঘেরও শাস্তি হওয়া উচিত।

মহাদায়ি অভয়ারণ্যে চারটি বাঘের মৃত্যু নিয়ে গতকাল বুধবার সরগরম হয়ে ওঠে গোয়া বিধানসভা। বিষয়টি উত্থাপন করেন বিরোধী দলনেতা দিগম্বর কামাট। উল্লেখ্য, কয়েকদিন আগেই এক বাঘিনী ও তার তিন শাবককে পিটিয়ে মারে গ্রামবাসীরা। গ্রামে হানা দিয়ে বেশ কয়েকটি গরু মেরেছিল ওই বাঘিনী বলে অভিযোগ গ্রামের মানুষের। সেই বিষয়েই চলছিল তর্ক।
তপ্ত বিতর্কের মাঝেই এনসিপি দলের বিধায়ক চার্চিল বলেন, “গরু খেলে বাঘেরও সাজা পাওয়া উচিত। মানুষ যদি গোমাংস খেলে শাস্তি পায়, তাহলে বাঘেরাই বা বাদ যাবে কেন?” এখানেই শেষ নয়, ওই বিধায়ক আরও বলেন, “পরিবেশ ও বন্যপ্রাণীরা গুরুত্বপূর্ণ। তবে মানুষেরও গুরুত্ব রয়েছে। এই গোটা ঘটনায় মানুষের কথা আগে ভেবে দেখতে হবে।”

এদিকে, বিধানসভায় গোয়ার মুখ্যমন্ত্রী প্রমোদ সাবন্ত জানিয়েছেন, রিপোর্ট মোতাবেক মহাদায়ি অভয়ারণ্যের পাশের একটি গ্রামে কয়েকদিন থেকেই হানা দিচ্ছিল বাঘ। বেশ কয়েকটি গরুও নিহত হয় বাঘের হামলায়। এতেই ক্ষেপে ওঠে গ্রামবাসীরা।

তিনি আরও জানান, বাঘের হামলায় যারা গরু হারিয়েছেন, তাদের এককালীন আর্থিক সহায়তা দেবে রাজ্য সরকার। উল্লেখ্য, মানুষ ও বন্যপ্রাণীদের মধ্যে ক্রমেই বেড়ে চলেছে সংঘাত। সংকীর্ণ হয়ে আসা জঙ্গল ও সভ্যতার অগ্রসনে কোণঠাসা হয়ে মানব বসতিতে হামলা চালাচ্ছে বাঘ, হাতির মতো প্রাণীরা।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে