২৮নং দক্ষিণ পাঠানটুলী ওয়ার্ডের কাউন্সিলর প্রার্থী হতে আগ্রহীসাবেক ছাত্রনেতা এডভোকেট টিপু শীল জয়দেব

0
719

সামাজিক, সাংস্কৃতিক ও রাজনৈতিক পরিবেশে বেড়ে উঠা সাবেক ছাত্রনেতা প্রতিশ্রতিশীল আইনজীবী এডভোকেট টিপু শীল জয়দেব আসন্ন চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে কাউন্সিলর প্রার্থী হতে আগ্রহী। উনার পিতা প্রয়াত সুলাল চন্দ্র শীল ছিলেন সাবেক সরকারী খাদ্য কর্মকর্তা ও মাতা কুমকুম শীল গৃহিনী হন। তার পিতামহ হলেন বোয়ালখালী নিবাসী প্রতিথযশা কবিরাজ স্বর্গীয় ডা. অন্নদা চরণ শীল ও মাতামহ সাবেক রেলওয়ে ইন্সপেক্টর স্বর্গীয় শশাংক বিমল সেন । শিক্ষাজীবনে এডভোকেট টিপু শীল জয়দেব পাঠানটুলী খান সাহেব সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় থেকে প্রাথমিক শিক্ষা ও পাঠানটুলী সিটি কর্পোরেশন বালক উচ্চ বিদ্যালয় থেকে বাণিজ্য শাখায় প্রথম বিভাগে মাধ্যমিক পাশ করেন। তারপরে ভর্তি হন চট্টগ্রাম সরকারি সিটি বিশ্ববিদ্যালয় কলেজে। সেখান থেকে এইচ.এস.সি, বি.এস.সি ও ব্যবস্থাপনায় মাষ্টার্স ডিগ্রি অর্জন করেন। সর্বশেষ চট্টগ্রাম আইন কলেজ থেকে এলএলবি ডিগ্রি অর্জন করে বার কাউন্সিল থেকে এডভোকেটশীপ সনদ নিয়ে চট্টগ্রাম জজ আদালতে সুনামের সহিত আইন পেশায় কর্মরত আছেন। স্কুলে অধ্যয়নের সময়েই তিনি পাঠানটুলী কাপুরিয়া পাড়াস্থ মুক্তিযুদ্ধের শহীদ স্মৃতি পাঠাগার ডবলমুরিং শাখার অন্যতম সংগঠক হিসেবে পরিচিত লাভ করেন। সেই সময় তিনি ব্রিটিশ বিরোধী আন্দোলনের কনিষ্ঠতম সদস্য প্রয়াত বিপ্লবী বিনোদ বিহারী চৌধুরী, ঘাতক-দালাল নির্মুল কমিটির ড. শাহরিয়ার কবির, ড. মুনতাসীর মামুন ও আন্তর্জাতিক সমাজবিজ্ঞানী প্রফেসর ড. অনুপম সেন-এর সংস্পর্শে নিজের প্রতিভাকে বিকশিত করেন। পরবর্তীতে যুদ্ধাপরাধীদের বিচারের দাবী জোরদার করতে সর্বস্তরের ছাত্র-যুবদের নিয়ে গঠিত রক্তিম ’৭১-এর সভাপতি হিসেবে জনমত গড়ে তোলেন। ছাত্রজীবনে তিনি প্রথমে ছাত্রলীগ-এর ওয়ার্ড পর্যায় থেকে শুরু করে পরে চট্টগ্রাম আইন কলেজ ছাত্র সংসদ নির্বাচনে ছাত্র-ছাত্রীদের প্রত্যক্ষ ভোটে ক্রীড়া সম্পাদক নির্বাচিত হন। ২০১৩ সালে তৎকালীন চট্টগ্রাম আইন কলেজ ছাত্রলীগ ও ছাত্র সংসদ এর সমন্বয়ে গঠিত কাউন্সিলরদের প্রত্যক্ষ ভোটে কলেজ ছাত্রলীগের সভাপতি নির্বাচিত হন। চট্টগ্রাম জজ আদালতে বঙ্গবন্ধু ও আওয়ামী আইনজীবী পরিষদ সমর্থিত সমন্বয় পরিষদ চট্টগ্রামের তিনি সক্রিয় সদস্য। বর্তমানে তিনি চট্টগ্রাম মহানগর যুবলীগের রাজনীতি ছাড়াও বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক জোট, মুক্তিযুদ্ধের শহীদ স্মৃতি পাঠাগার, রক্তিম ’৭১-এর সভাপতি সম্পৃক্ত ছিলেন। কেন তিনি কাউন্সিলর প্রার্থী হতে চান সেই প্রশ্ন করলে এডভোকেট টিপু শীল জয়দেব বলেন, বঙ্গবন্ধুর আদর্শকে ধারণ করে জননেত্রী শেখ হাসিনার ভিশন বাস্তবায়নে জনগণের সেবায় তিনি নিজেকে নিয়োজিত করতে চান।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে