তাহিরপুরে পাগলী কন্যা সন্তানের মা হলেও বাবা হলনা কেউ

0
723

আমির হোসেন, তাহিরপুর (সুনামগঞ্জ)
সুনামগঞ্জের তাহিরপুর উপজেলার উত্তরাঞ্চল খ্যাত বাণিজ্যিক কেন্দ্র বাদাঘাট বাজারে থাকা ভবঘুরে এক পাগলী প্রায় একযুগ ধরে থাকা পাগলিনী ফুটফটে এক নবজাত কন্যা সন্তানের জন্ম দিয়ে মা হলেও বাবা হলনা কেউ। এ ঘটনাটি ঘটেছে বৃহস্পতিবার সকাল ৮টায় সময় উপজেলার বাদাঘাট বাজারের। তবে এখনো পর্যন্ত কোন হদিস মিলছেনা ওই পাগলীর জন্ম দেয়া নবজাতক শিশু কন্যা সন্তানের পিতার পরিচয়।

এঘটনায় পুরো উপজেলা জুড়েই বইছে আলোচনা আর সমালোচনার ঝড়। জানাযায়, বাদাঘাট পুলিশ ফাড়ির সদস্যরা বাদাঘাট বাজারে টহলের সময় বৃহস্পতিবার ভোর রাতে পাগলীর চেচামেচি ও চিৎকার শোনা এগিয়ে গিয়ে দেখতে পায় পাগলী প্রসব ব্যাথায় চিৎকার চেচামেচি করছে। পরে তারা দ্রুত বাজারের নারী পরিচ্ছন্ন কর্মী কুলসুমা বেগম তার সহকর্মী পুরুষ পরিচ্ছন্ন কর্মী হাফিজুর রহমানের তুলে দেয়। পরে তাদের বাড়িতে নিয়ে গেলে পরে সকাল ৮ টার সময় ওই ভবঘুরে ৩৫ বছর বয়সী পাগলী নারী পুরুষ দুই পরিচ্ছন্ন কর্মী তত্বাবধানে এক ফুটফুটে শিশু কন্যা জন্ম দেয়। পরে বিকাল ৪ টার দিকে বাদাঘাট বাজার বণিক সমিতির হেফাজতে চিকিৎসার জন্য ওই পাগলী মা ও নবজাতক শিশু কন্যাকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে ভর্তি করানো হয়। বাদাঘাট বাজারের বণিক সমিতির সভাপতি সেলিম হায়দার বলেন, কি আর বলব। এটা খুব লজ্জাজনক কাজ। কে বা কার ওই পাগলীর সাথে এরকম কাজ করেছে তার অবশ্যই শাস্তি হওয়ার দরকার।

এ ব্যপারে তাহিরপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বিজেন ব্যানর্জী বলেন, পাগলীর নবজাতক সন্তানের পিতার পরিচয় বের করতে পুলিশকে নিদর্শনা দেওয়া হয়েছে। তাহিরপুর উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. ইকবাল হোসেন বলেন, চিকিৎসাসেবার পর আপাতত মা ও নবজাতক শিশু কন্যা ভাল ও সুস্থ আছে। তাহিরপুর থানার ওসি মো. আতিকুর রহমান বলেন , ওই পাগলী আর নবজাতক শিশু কন্যার দেখা শোনা করার জন্য বাদাঘাটে এক মহিলার হেফাজতে দেওয়া হয়েছে। এছাড়াও এ নবজাতক শিশু কন্যার পিতৃ পরিচয় শনাক্ত করনে পুলিশী তদন্ত চলছে।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে