‘খালেদা জিয়াকে ছাড়া এদেশে কোনো নির্বাচন হবে না’

0
532

বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, খালেদা জিয়াকে ছাড়া বিএনপি নির্বাচনে যাবে না। এদেশে কোনো নির্বাচন হবে না। অবশ্যই তাকে মুক্তি দিতে হবে। সরকারকে পদত্যাগ করতে হবে, সংসদ ভেঙে দিয়ে সেনাবাহিনী মোতায়েন করে নির্বাচন দিতে হবে।

মঙ্গলবার দুপুরে রাজধানীর রমনায় ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউট মিলনায়তনে জিয়াউর রহমানের শাহাদাতবার্ষিকী উপলক্ষে বিএনপি আয়োজিত আলোচনা সভায় তিনি এ কথা বলেন।

ফখরুল বলেন, নির্বাচনই সরকার পরিবর্তনের একমাত্র গণতান্ত্রিক পথ। কিন্তু যদি সেই নির্বাচনের পরিবেশ না থাকে, সেই নির্বাচন যারা পরিচালনা করবে তারা যদি একদলীয় শাসন ব্যবস্থা প্রবর্তন করতে চায় তাহলে সে নির্বাচন কখনও হবে না। সেজন্য আমরা পরিষ্কার করে বলেছি, খালেদা জিয়াকে মুক্তি দিতে হবে।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে দলের স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন বলেন, একজন সৈনিক-প্রেসিডেন্ট ও রাজনীতিবিদ হিসেবে জিয়াউর রহমান সফল ছিলেন। যারা দেশের উন্নতি চায় না, সেসব দেশি-বিদেশি কুচক্রিমহল জিয়াউর রহমানকে হত্যা করেছিল।

তিনি বলেন, আইন আদালতের মাধ্যমে খালেদা জিয়ার মুক্তি সম্ভব নয়। সরকারের পতনের মাধ্যমে খালেদা জিয়াকে মুক্ত করতে হবে। সেজন্য আমরা যে ধরনের আন্দোলন করছি সে আন্দোলনের মধ্যেই আন্দোলন সীমাবদ্ধ থাকবে না। দেশের মানুষই সেই ধরনের কর্মসূচি দেবে, যাতে খালেদা জিয়াকে মুক্ত করা যাবে।

ড. মোশাররফ বলেন, ২০১৮-১৯ হবে গণতন্ত্রের বছর, খালেদা জিয়ার বছর, শহীদ জিয়ার আদর্শ বাস্তবায়নের বছর।

মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় অন্যদের মধ্যে বক্তব্য দেন স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ, মির্জা আব্বাস, গয়েশ্বর চন্দ্র রায়, ড. আব্দুল মঈন খান, নজরুল ইসলাম খান, ভাইস চেয়ারম্যান মেজর অব. হাফিজ উদ্দিন আহমেদ বীর বিক্রম, সেলিমা রহমানসহ দলীয় নেতারা।

বিডি-প্রতিদিন

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে