অনুরণন (ধারাবাহিক গল্প) পর্ব -১

0
694
কবি-সুজাতা দাস

অনুরণন
সুজাতা দাস (কোলকাতা)
(ধারাবাহিক গল্প) পর্ব -১

একটা সম্পর্ক কে সুন্দর করে ধরে রাখার দায় কী শুধু মেয়েদের উপরেই বর্তায়?ঘুরে দাড়িয়ে বলল মোহর ;
হঠাত্ এতগুলো বছর পর এই কথা কেন? বলল অর্জুন।
আসলে আমি ক্লান্ত অবসন্ন বিবর্ণ একটা সম্পর্ক কে কেন টেনে নিয়ে চলেছি, আমি নিজেও এখনও বুঝে উঠতে পারছিনা অর্জুন!!!!
এবার বোধহয় সময় এসেছে নিজেদের মতো করে চলার বলল মোহর।
বেশ তবে তাই হোক।
মোহর দি ও মোহর দি কী এত চিন্তা করছো কখন থেকে ডাকছি শুনতে পারছো না বলল মেহুলি
কিছুই তো চিন্তা করছি না,ভাবছি।
দুটো কী আলাদা ,বলল মেহুলি;
বলার ভঙ্গিতে হেসে উঠলো মোহর,আর ভাবলো এই মেয়েটির করনেই এখনও হাসতে পারছে মোহর।
আজকের এই বনভোজনের আমন্ত্রণে আসতেই চাইছিল না মোহর,তাকে নিয়ে কেউ কৌতুহল দেখাক এটাও পছন্দ নয় মোহরের।
আজ চার বছর হল অর্জুন কে ছেড়ে এসে দমদমের একটা এপার্টমেন্টে উঠেছে ; মা বাবার কাছে ফিরতে চায়নি নিজের আত্মসম্মান কে বজায় রাখার জন্য।
আজ অনেকদিন পর মা বাবার কথা মনে পরলো আবার,অনেক গুলো বছর হয়ে গেছে মা বাবা বাড়ির কারো সাথে যোগাযোগ নেই;হয়তো কেউ জানেও না ওর কথা।
মা,মায়ের ও কী একবারের জন্যও মনে পড়ে না খুকু কে!!
চোখের কোণটা ভিজে উঠলো মোহরের,কেউ যাতে দেখতে না পায় তাই তাড়াতাড়ি মুখটা ঘুরিয়ে নিল।
তুমি এখানে এসেও পুরোনো কথাই ভাবছো? বলল মেহুলি ।
নারে হঠাত্ করেই বাড়ির কথা মনে পড়ে গেল তাই।
তারপরেও মেহুলির জন্যই পিকনিক জমে গেল বাড়ি ফিরতে নটা হল,বাড়িতে ফিরে খুব ভালো করে স্নান করলো রাত পোশাক পরে সোজা বিছানায় চলে এলো।
ঘুমের আগে একটু বই পড়ার অভ্যাস মোহরের সবার বই পরে ,কিন্তু সুচিত্রা ভট্টাচার্যের বই পরতে বেশি ভালোবাসে;মিতিনের চরিত্রটি ভীষণ পছন্দের। যে ভাবে অবলীলায় case solved করে মিতিন তুলনা নেই তার।
আজ অনেক দিন পর ব্যতিক্রম ঘটল মোহরের,বই পরেও ঘুম এলো না কিছুতেই ,ফিরে যেতে থাকলো সেই কলেজের দিন গুলোতে ।
কেমন করে যে অর্জুন এর সাথে জড়িয়ে ফেলল নিজেকে সবার বারণ সত্ত্বেও আজও ভাবলে অবাক লাগে।
এভাবেই বোধহয় জীবনেরা সব ভুল করে ফেলে,যা আর শোধরানোর কোনও উপায় থাকেনা।
লেখাপড়ায় ভীষণ ভালো ছিল মোহর, B.S.C তে 1st class পেয়ে M.S.C তে ভর্তি হলো Presidenty তে।
সেখানে ই একটা সমাবর্তন অনুষ্ঠানে পরিচয় হলো অর্জুনের সাথে হঠাত্ করেই।
একদম মহিলা পরিবৃত হয়ে বসে ছিল, বারবার তাকিয়ে দেখছিল মোহরের দিকে আর কিছু বলে হাসছিল।
কমলিনির উসকানিতে হঠাত্ উঠে গিয়ে জিজ্ঞাসা করলো আপনি আমাকে নিয়ে কী আলোচনা করছেন?
বোকার মতো কাজটা করে ফেলার পর, সম্বিত ফিরলে ফিরে আসার মূহুর্তে …
ক্রমশ ….চলবে

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে