রুটস অফ রিসোর্স আয়োজিত “শেয়ারিং হ্যাপিনেস” প্রোগ্রামটি চট্টগ্রামের স্বনামধন্য রেস্টুরেন্ট দ্যা হাইড আউট লাউঞ্জ ও গেইম জোন এ অনুষ্টিত হয়।

0
1315
রুটস অফ রিসোর্স আয়োজিত “শেয়ারিং হ্যাপিনেস” প্রোগ্রামটিতে ইফতার করছে এতিমখানার ৫০ জন সুবিধাবঞ্ছিত কোমলমতি শিশুরা

তারুণ্য বিডি ২৪ ডটকম, চট্টগ্রাম : ​২৬শে মে রুটস অফ রিসোর্স আয়োজিত “শেয়ারিং হ্যাপিনেস” প্রোগ্রামটি চট্টগ্রাম শহরের স্বনামধন্য রেস্টুরেন্ট দ্যা হাইড আউট লাউঞ্জ ও গেইম জোন এ অনুষ্টিত হয়। 

প্রজেক্টির উদ্দেশ্য ও লক্ষ্য ছিল সুবিধাবঞ্ছিত শিশুদের মাঝে নতুন ভাবনার উদয় সৃষ্টি করা। তাদেরকে নতুন একটি পরিবেশের সাথে পরিচয় করিয়ে দেয়া এবং জীবনকে নতুনত্বের রঙ্গিন চোখে দেখানো। বায়তুর রিদওয়ান এতিমখানার ৫০ জন সুবিধাবঞ্ছিত শিশুদের সাথে ইফতার মাহফিল এর আয়োজন করা হয়। ইফতার আয়োজন ছাড়াও শিশুদের জন্য ছিল নানা ধরণের ভিডিও গেইমস, নাইন ডি মুভি, বিভিন্ন ধরণের গেইমস রাইড ও ইসলামী সঙ্গীত এর আয়োজন।


তরুণ উদ্যোক্তা সৈয়দ রুম্মান আহমেদ (চেয়ারম্যান – হাইড আউট লাউঞ্জ), রূটস অব রিসোর্স এর প্রতিষ্ঠাতা ও চেয়ারম্যান – মু. রিদুয়ানুল হক চৌধুরী, গ্লোবাল ডিরেক্টর – মোহাম্মদ তৌফিকুল আলম, ডিরেক্টর – এইচ. এম. জিহাদ, রোয়ার এর প্রেসিডেন্ট জাওয়াদুল করিম, সেক্রেটারি তারেক মাহবুব খান, প্রোগ্রাম ডেভলপমেন্ট অফিসার সোহাইল মাহমুদ, ইয়ুথ অ্যাফেয়ার্স সায়মা চৌধুরী ও ভলান্টিয়ারবৃন্দ। এশিয়ান ইউনিভার্সিটি ফর ওমেন এর নেপালী শিক্ষার্থী আনিতা জাইসওয়াল, ইয়্যুথ অপরচুনিটিস – সিআইইউ এর ক্যাম্পাস এম্বাসেডর নাবিলা আক্তার।

রুটস অব রিসোর্সের এর ফাউন্ডার ও চেয়ারম্যান থেকে উক্ত প্রজেক্টি সম্পর্কে জানতে চাইলে তিনি বলেন, রমজান মাসে সুবিধাবঞ্চিতদের জন্য সবাই অনেক প্রোগ্রাম করে থাকে। তারা একটি বৃত্তের মধ্যে ঘিরে থাকে ঐ বৃত্ত থেকে তারা বের হতে পারে না। আমরা ভাল পরিবারের সন্তানেরা খুব সহজেই এইসব রোমাঞ্চকর পরিবেশে যেতে পারি। সুবিধাবঞ্চিত শিশুরা স্বপ্নেও এইসব পরিবেশের কথা ভাবতে পারেনা। তাদের নতুন করে স্বপ্ন দেখাতে, তাদের চিন্তা চেতনার পরিবর্তন আনতে আমাদের অন্যরকম এই আয়োজন। “শেয়ারিং হ্যাপিনেস” এই নামটি কেন দিয়েছেন? তিনি বলেন খুশি এমন একটি অনুভূতি যা যত শেয়ার করা যায় ততই বাড়ে, খুশি শেয়ার করার অনুভূতি আসলেই অন্যরকম। প্রজেক্টি ছোট পরিসরে শুরু করলেও আগামীতে আরো বড় করে করার ইচ্ছে পোষণ করেন তিনি।

শিশুদের জন্য ছিল নানা ধরণের ভিডিও গেইমস, নাইন ডি মুভি, বিভিন্ন ধরণের গেইমস রাইড ও ইসলামী সঙ্গীত এর আয়োজন
নাইন ডি মুভি, বিভিন্ন ধরণের গেইমস রাইড

উক্ত প্রোগ্রামটিতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন তরুণ উদ্যোক্তা সৈয়দ রুম্মান আহমেদ (চেয়ারম্যান – হাইড আউট লাউঞ্জ), আরও উপস্থিত ছিলেন রূটস অব রিসোর্স এর প্রতিষ্ঠাতা ও চেয়ারম্যান – মু. রিদুয়ানুল হক চৌধুরী, গ্লোবাল ডিরেক্টর – মোহাম্মদ তৌফিকুল আলম, ডিরেক্টর – এইচ. এম. জিহাদ, রোয়ার এর প্রেসিডেন্ট জাওয়াদুল করিম, সেক্রেটারি তারেক মাহবুব খান, প্রোগ্রাম ডেভলপমেন্ট অফিসার সোহাইল মাহমুদ, ইয়ুথ অ্যাফেয়ার্স সায়মা চৌধুরী ও ভলান্টিয়ারবৃন্দ। এছাড়াও অতিথি হিসেবে ছিলেন এশিয়ান ইউনিভার্সিটি ফর ওমেন এর নেপালী শিক্ষার্থী আনিতা জাইসওয়াল, ইয়্যুথ অপরচুনিটিস – সিআইইউ এর ক্যাম্পাস এম্বাসেডর নাবিলা আক্তার।

উক্ত প্রজেক্টটির এসোসিয়েট হিসেবে ছিলেন রুটস অব রিসোর্স, অরগানাইজড করেন রোয়ার, গ্লোবাল মুভমেন্ট হিসেবে ছিলেন এ ওয়ার্ল্ড এট স্কুল (গ্লোবাল ইয়ুথ এম্বাসেডর), পার্টনার হিসেবে ছিলেন হাইড আউট লাউঞ্জ।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে