রাজারহাটে বিচারাধীন মামলা থাকাবস্থায়বাদীকে হুমকী প্রদর্শনের অভিযোগ

0
608

(কুড়িগ্রাম)
রাজারহাটে জোড় পূর্বক নন জুডিশিয়াল ষ্ট্যাম্পে স্বাক্ষর গ্রহনের বিচারাধীন
মামলার বাদীর কাছ থেকে জমি রেজিষ্ট্রির দাবীতে আসামী পক্ষ ভয়ভীতি ও হুমকী
প্রদর্নের অভিযোগ উঠেছে।
জানা গেছে,উপজেলার ছিনাই ইউনিয়নের ছত্রজিৎ গ্রামের মদন চন্দ্রের পুত্র
মনোরঞ্জন তার একটি সুপারী বাগান একই উপজেলার চাকিরপশার ইউনিয়নের
খুলিয়াতারী গ্রামের নবী হোসেনের পুত্র হযরত আলীর নিকট এক লক্ষ টাকায় তিন
বছরের জন্য লিজ প্রদান করে। তিন বছর পেরিয়ে যাওয়ার পরও হযরত আলী বাগান ফেরত
না দিয়ে মনোরঞ্জনের জমি তার কাছে বিক্রি করতে বলে। এতে মনোরঞ্জন রাজী না
হওয়ায় গত বছরের ১৬নভেম্বর হযরত আলীর লোকজন সহ মনোরঞ্জনের বাড়িতে গিয়ে
জোড়পূর্বক ফাঁকা ষ্ট্যাম্পে স্বাক্ষর গ্রহন করে। মনোরঞ্জন সংখ্যালঘু সম্প্রদাযের
লোক হওয়ায় এসময় হযরত আলী ও তার লোকজন মনোরঞ্জনের কাছ থেকে জমি লিখে
নিয়ে ভারতে পাঠানোর হুমকী প্রদর্শন করে। পরে নিরুপায় হয়ে মনোঞ্জন আদালতে
ষ্ট্যাম্প উদ্ধারের জন্য একটি মামলা দায়ের করেন। যা বর্তমানে আদালতে বিচারাধীন
রয়েছে। এদিকে বিচারাধীন মামলা থাকাবস্থায় হযরত আলী ও সাঙ্গ পাঙ্গরা পূনঃরায়
জমি রেজিষ্ট্রি করে দেয়ার জন্য মনোরঞ্জনকে হুমকী প্রদর্শনের অভিযোগ করেছেন
মনোরঞ্জন। তবে অভিযোগ অস্বীকার করেছে হযরত আলী। এবিষয়ে ছিনাই ইউনিয়ন
চেয়ারম্যান নুরুজ্জামন হক বুলুর সাথে কথা হলে বিষয়টি তার জানা নেই বলে
জানান।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে