পরীক্ষার ফিস এর টাকার জন্য রাস্তায় চা বিক্রি করছে পঞ্চম শ্রেনীর ছাত্র পারভেজ

0
675

বোরহান উদ্দিন সাকিব: আজ একটি কাজে গেলাম চট্রগ্রাম বি আর টি এ অফিস এ কাজের ফাঁকে হঠাৎ চা খেতে ইচ্ছা করলো দেখলাম একটা ছেলে চা বিক্রি করছে। এগিয়ে গেলাম চা দিতে বল্লাম নাম জিজ্ঞেস করলাম নাম পারভেজ।স্কুল মিলিনিয়াম পাবলিক স্কুল।বাড়ি বরিশাল চা খেতে খেতে কথা হল। থাকে অক্সিজেন এলাকায়। জিজ্ঞেস করছি চা কত দিন ধরে বিক্রি করো। বললো ভাইয়া চা বিক্রি করিনা সামনের সামে সমাপনী পরীক্ষা পরীক্ষার ফিস দিতে হবে। আম্মা টাকা দিতে পারছেনা তাই ফিস এর টাকা সংগ্রহ করতে চা বিক্রি করতে বের হয়েছি। তারপর জিজ্ঞেস করলাম কারো কাছে তো চাইতেই পারো সে বল্লো ভাইয়া কারো কাছে টাকা চাইলেই অইটা ভিক্ষা হয় যাবে । কারো কাছে টাকা চাইতেই পারবো না। আমি টাকা দিয়ে পড়াশোনা করতে চাই আমি বড় হয়ে মাস্টার্স পাশ করবো একটা চাকরি করবো।। টাকা ইনকাম করে একটা স্কুল বানানো ওখানে আমার মতো গরিব ছেলে মেয়েরা ফ্রি পড়ালেখা করবে আমি তার ভবিষ্যৎ এর কথা শুনে আবেগ প্রবন হয়ে গেলাম। আমি তার টাকা দিতে চাইলাম সে নিলোনা। বললো আমার চা এর বিল দিলে হবে। পড়ে অনেক কস্টে ছবি তুললাম। সে বললো ভাইয়া এসব ফেইসবুক দিয়েন না আমাকে লজ্জায় ফেলবেন । পরিশেষে আমি থাকে ভরসা দিলাম যদি তোমার কখনো কিছু প্রয়োজন হয় আমার কাছে এসো আমি ও তারুন্য বিডি তোমার পাশে আছে। তুমি মন দিয়ে পড়াশোনা করো। তোমার পরীক্ষা ভালো হোক এই দোয়া। ভবিষ্যতে তুমি একজন ভালো মানুষ হও।পারভেজ এর মতো এসব অসহায় ছেলের জন্য আমাদের এগিয়ে আসা উচিত। নিজ নিজ জায়গা থেকে। অবশেষে আমি তার কাছ থেকে বিদায় নিলাম।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে