লক্ষ্মীপুরে মা ইলিশ ধরায় ১৯ জেলের জেল-জরিমানা!

0
638

অ আ আবীর আকাশ, লক্ষ্মীপুর:
লক্ষ্মীপুরের রামগতি ও কমলনগর উপজেলার মেঘনা নদীতে নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে মা ইলিশ ধরার অপরাধে ১৯ জেলেকে আটক সহ তাদের জেল-জরিমান করেছে ভ্রাম্যমান আদালত। এ সময় তাদের কাছ থেকে ২০ হাজার মিটার কারেন্ট জাল ও দুটি মাছ ধরার ইঞ্জিন চালিত নৌকা জব্দ করা হয়।

গতকাল মধ্য রাত থেকে আজ দুপুর পর্যন্ত মেঘনা নদীর বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে তাদের আটক করা হয়। পরে ভ্রাম্যমান আদালত বসিয়ে আজগর হোসেন, রিপন উদ্দিন, হাসান, আলাউদ্দিন, জাহাঙ্গীর আলম, শাহীন, হেলাল উদ্দিন, সুজন মিয়া, আরিফ হোসেন, গণি মিয়া, মুুছা কালিম উল্যাহ, ফারুক হোসেন, আমির হোসেন ও আনোয়ার হোসেন সহ ১৪ জেলেকে এক মাস করে বিনাশ্রম কারাদন্ড ও আজাদ উদ্দিন, সফিক উল্যাহ, তোফাজ্জল হোসেন, আলী হোসেন ও আবুল হোসেনসহ ৫ জেলেকে অর্থদন্ডের আদেশ দেয়া হয়।এরপর তাদেরকে লক্ষ্মীপুর জেলা কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

রামগতি উপজেলা নির্বাহী অফিসার সুচিত্র রঞ্জন দাস ও কমলনগর উপজেলা নির্বাহী অফিসার ইমতিয়াজ হোসেন এ ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করেন। এ সময় উপজেলা মৎস্য ও পুলিশ কর্মকর্তাসহ এলাকাবাসী উপস্থিত ছিলেন।

লক্ষ্মীপুর জেলা মৎস্য কর্মকর্তা এস এম মহিব উল্যাহ বলেন, নিষেধাজ্ঞার সময় মেঘনা নদীতে মা ইলিশ ধরার অপরাধে ১৯ জেলেকে আটক করে ১৪ জনকে এক মাসের বিনাশ্রম কারাদন্ড ও ৫ জনকে অর্থদন্ডের আদেশ দেন ভ্রাম্যমান আদালত।

নিষোধাজ্ঞার সময় ২২ দিন মাছ শিকার, পরিবহন, মজুদ ও বাজারজাত অথবা বিক্রি নিষিদ্ধ করা হয়েছে। এ আইন আমান্য করলে ১ বছর থেকে ২ বছরের জেল জরিমানা এবং উভয় দন্ডের বিধান রয়েছে। প্রতিদিন মেঘনা নদীতে মৎস্য বিভাগ, জেলা প্রশাসন ও কোষ্টগার্ডের যৌথ অভিযান চালছে।এ অভিযান ৩১ অক্টোবর পর্যন্ত চলবে।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে