রোটারী ক্লাব চিটাগাং কমার্শিয়াল সিটির ৪৪তমপাক্ষিক সভায় চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের প্রধান নগর পরিকল্পনাবিদ স্থপতি একেএম রেজাউল করিম

0
632

রোটারী ক্লাব অব চিটাগাং কমার্শিয়াল সিটির ৪৪তম পাক্ষিক সভা ১৮ অক্টোবর
২০১৯ইং চট্টগ্রাম ক্লাব লিঃ এ ক্লাবের সভাপতি রোটারিয়ান মোঃ শাহীন আলম
সরকারের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত হয়। উক্ত সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন
চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের প্রধান নগর পরিকল্পনাবিদ স্থপতি একএম রেজাউল করিম
এবং অতিথি বক্তা হিসেবে উপস্থিত ছিলেন চট্টগ্রাম ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল
ডিফেন্স এর উপ: সহ: পরিচালক পূর্ণা চন্দ্র মুৎসুদ্দি।
সভায় অতিথি বক্তা বলেন- নিয়মিত হাটাহাটি করলে শরীর সুস্থ থাকে এবং আযু বাড়ে
এলক্ষ্যে নগরবাসীকে গাড়ীর ব্যবহার কমিয়ে দৈনন্দিন কমপক্ষে ২ কিঃ মিঃ হাটাচলা করা
প্রয়োজন বলে উল্লেখ করেন। তিনি নগরবাসীর নির্বিঘেœ হাটাচলার সুবিধার্থে
নগরীর প্রতিটি ফুটপাত হতে পার্কিং ও দোকান মুক্ত করে জনগনের জন্য উন্মক্ত করতে
সংশ্লিষ্ট সকলকে এগিয়ে আসার আহবান জানান।
এছাড়াও তিনি মানবসম্পাদ রক্ষায় শিক্ষার্থীদের প্রতিভা ও মেধা বিকাশে নিয়মিত
খেলাধুলা ও শরীর চর্চা করার জন্য চট্ধসঢ়;গ্রাম নগরীতে খেলার মাঠ বৃদ্ধি, যানজট হতে
মুক্তির জন্য নগরীতে পাবলিক এসি বাস চালুকরা, বিভিন্ন রুটে চলাচলকারী পরিবহনে
শৃ্ধংসঢ়;খলা ফিরানো, সিটি ট্রেন সার্ভিস চালু করা, নদীতে ব্যাটারী চালিত পরিবেশ
বান্ধব ওয়াটার ট্রান্সপোর্ট চালু করাসহ সকল ডোবা, দিঘী নালা উদ্ধার ও সংরক্ষনে
চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন কর্তৃক গ্রহণকৃত বিভিন্ন উদ্যোগ বাস্তবায়ন
শেষে নগরবাসী উপকৃত হবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন।
অতিথি বক্তা- যেকোন দূর্ঘটনা কবলিত সময়ে সম্পদ ও আসবাবপত্রের চেয়ে জীবনের মূল্য
অধিক গুরুত্বপূর্ণ বলে উল্লেখ করেন। তিনি আগুন লাগা ও দূর্ঘটনা ঘটার সাথে সাথে
ফায়ার সার্ভিস কর্মীদের অবহিত করে তাদের সহযোগিতা গ্রহণের উপর গুরুত্বারোপ
করেন।
এছাড়াও তিনি বলেন, ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স এর জনবল ও আধুনিক
সময়পযোগী সরঞ্জামের সীমাবদ্ধাতার মাঝেও চট্টগ্রামে যেকোন দূর্ঘটনা
মোকাবিলায় ফায়ার সার্ভিস প্রতিটি ওয়ার্ডে ২০০ জন যুবক ও শিক্ষার্থীকে
প্রশিক্ষিত করা হচ্ছে এবং নগরীর আন্দরকিল্লা, ২নং গেইট, হালিশহর, পতেঙ্গা, নতুনবীজ,
রেয়াজউদ্দিন বাজার, খাতুনগঞ্জ, আগ্রাবাদসহ বিভিন্ন জনগুরুত্বপূর্ণ এলাকায়
স্যাটেলাইট ও মোবাইল টিম সার্বক্ষনিক অবস্থান করে দূর্ঘটনায় উদ্ধার কাজে
নিয়োজিত থাকার বিষয় উল্লেখ করে বিস্তারিত আলোচনা করেন। তিনি বৈদুতিক ও

আগুনের ব্যবহার, দূর্ঘটনা, এবং বিভিন্ন দূর্যোগে দৈনন্দিন জীবনে নিজ নিজ
অবস্থান হতে অধিক সচেতন হওয়ার আহবান জানান।
সভায় আরো উপস্থিত ছিলেন- এডিশনাল ল্যা. গর্ভণর রোটাঃ মোহাম্মদ আশরার,
এসিস্ট্যান্ট গর্ভণর রোটারিয়ান আমিন উল্লাহ মোর্শেদ, আরসি কর্মাশিয়াল সিটির
আইপিপি রোটাঃ মোঃ আবসারুল হক, ভিপি রোটাঃ মোহাম্মদ ইসহাক, ভিপি রোটাঃ
সৈয়দ ইরফানুল আলম, সেক্রেটারী রোটাঃ মোহাঃ সেলিম উদ্দিন, ডাইরেক্টর প্রকৌশলী
মোঃ এমরান হোসেন, মেম্বার মোঃ ইকবাল হোসেন, রোটাঃ প্রকোঃ শাহীন চৌধুরী,
আরসি চট্টগ্রাম পোর্ট সিটির প্রেসিডেন্ট রোটাঃ এএফএম মোর্শেদুল আলম,
সেক্রেটার রোটাঃ মোঃ আরমান, রোটাঃ সাইফুল ইসলাম, আরসি চট্টগ্রাম নর্থ এর
প্রেসিডেন্ট রোটাঃ আব্দুল খালেক, আইপিপি রোটাঃ কাজী জসিম উদ্দিন, পিই
রোটাঃ আজগর আলী, রোটাঃ আবুল হোসেন, রোটাঃ শহিদ উল্লাহ আরআইডি ৩২৮১ এর
পিপি রোটাঃ নুরুল হুদা, অতিথি- জনাব এমএ জলিল, জনাব উৎপল কান্তি দাশ, জনাব
মোঃ তোহা, প্রকৌঃ মোঃ ফেরদৌস, প্রকৌঃ তাবাসসুম নাসরিন, মোঃ আরফান
উল্লাহ চৌধুরী, রোটার‌্যাক্টর তাসনিম হাবিবা আনজুম , শাকিল ইমন, সাদ্দাম
হোসাইন, মিনার মন্ডল, সাইফুল ইসলাম, রাজিয়া সুলতানা জেরিন, রাজ কুমার
চৌধুরী। প্রমুখ।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে