শিশুর কান ও লিঙ্গ কেটে হত্যা, পেটে ছুরি ঢুকিয়ে ঝুলিয়ে গেছে গাছের সঙ্গে

0
725

জামরুল ইসলাম রেজা, সুনামগঞ্জ থেকেঃ ৫ বছরের হাস্যোজ্বোল শিশু তুহিন। ঘুমিয়েছিল মা বাবার সঙ্গে। সোমবার ভোরে ঘুম থেকে তুলে নিয়ে তাকে নির্মমভাবে হত্যা করেছে দুবৃত্তরা। তার কান ও লিঙ্গ কেটে ফেলেছে। গাছের সঙ্গে ঝুলিয়ে রেখে হত্যাকান্ডে ব্যবহৃত ছুরি দুটি পেটের ভেতর ডুকিয়ে রেখে গেছে। কোমলমতি শিশুর সঙ্গে এমন নির্মম নিষ্টুর ঘটনায় ক্ষুব্দ হয়ে ওঠছেন এলাকাবাসী। মুষরেপড়া পরিবারকে সান্ত্বনা দেবার ভাষাও হারিয়ে ফেলছেন প্রতিবেশিরা। এলাকাবাসী এ ঘটনায় জড়িত পাষণ্ডদের কঠিন শাস্তি দাবি করেছেন।

জানা গেছে সোমবার ভোরে শিশুটিকে হত্যা করা হয়। তুহিন দিরাই উপজেলার রাজানগর ইউনিয়নের কেজাউরা গ্রামের আব্দুল বাছিরের ছেলে। এই ঘটনায় এলাকার শোকের ছায়া নেমে এসেছে।
পুলিশ জানায়,সোমবার ভোরে পরিবারে অগোচরে ঘুম থেকে তুহিনকে তুলে নেওয়া হয়। পরে তাকে নির্মমভাবে হত্যা করা হয়। বাড়ির পাশে গাছের সঙ্গে ঝুলিয়ে রেখে যায় ঘাতকরা। পরিবারের সঙ্গে পূর্ব শত্রুতার জের ধরেই এ ঘটনা ঘটেছে বলে ধারণা স্থানীয়দের।
এদিকে এ ঘটনার খবর পেয়ে দিরাই থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে লাশের সুরত হাল প্রতিবেদন তৈরী করছে। দিরাই থানার ওসি এম নজরুল ইসলাম বলেন, ঘাতকদের ধরতে আমরা কাজ শুরু করেছি। নির্মম এ ঘটনার সঙ্গে জড়িতদের আইনের আওতায় নিয়ে আসা হবে দ্রুততম সময়ে।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে