চট্রগ্রাম সীতাকুণ্ডে প্রথমবারের মতো কুমারী পূজার কুমারী অর্পিতা ।

0
629

মিয়া বাবলা: সীতাকুণ্ডে প্রথমবারের মতো কুমারী পূজা অনুষ্ঠিত হয়েছে। ৯ বছর বয়সের অর্পিতা দাশকে প্রথম কুমারী পুজোর জন্য নির্বাচন করা হয়। অর্পিতা দাশ উপজেলার দত্তবাড়ি সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ৩য় শ্রেণীর ছাত্রী ও শিমুল দাশের মেয়ে। শারদীয়া দূর্গা পূজার ৫৫ বছর পূর্তি উপলক্ষে এবারই প্রথম সীতাকুণ্ড উপজেলার মহাসীতাকুণ্ড পুর সার্বজনীন পূঁজা উৎযাপন পরিষদের উদ্যেগে উক্ত কুমারী পূজাঁ অনুষ্ঠিত হয়।

৭ সেপ্টেম্বর সকালে মন্ডপে শুরু হয় হিন্দু সম্প্রদায়ের সর্ববৃহৎ ধমীয় উৎসব শারদীয় দূর্গোৎসবের অষ্টমী ও কুমারী পূঁজা। সকাল থেকে পুজা মন্ডপে দূর্গা দেবীকে পূঁজার অর্ঘ ও আরতি দিয়ে শুরু হয় কুমারী পূঁজার নানান আয়োজন।আর এই উপলক্ষে পুঁজা মন্ডপ গুলোয় ভক্তদের ছিল উপচেপরা ভিড়। তারা তাদের মনোবাসনার পূর্নতা চেয়ে দেবীর নিকট প্রার্থনা করে। ঢাক ঢোল কাশর ও শংখের শব্দ আর ধূপের ধোয়ায় মাঝে পুরোহিতের মন্ত্র পাঠে সৃষ্টি হয় অভূত আরাধনার পরিবেশ। পূজা উৎযাপন পরিষদের সভাপতি তাপস চক্রবর্ত্তী মিঠু বলেন, প্রতি বছরের ন্যায় এবারও সীতাকুণ্ডের ৬১টি পূজা মন্ডপে শারদীয়া দূর্গা পূজা অনুষ্ঠিত হলেও প্রথমবারের মত কুমারী পূজা অনুষ্ঠিত হবে আমাদের পূজা মন্ডপে। এ কুমারী পূজার মাধ্যমে জাগতিক সকল অশুভ শক্তির বিনাশ,বিশ্বব্যাপী উত্থান হওয়া জঙ্গিবাদ দূরবিত করা এবং সত্য, শান্তি, কল্যান ও শুভ শক্তির আর্ভিভাব ঘটবে। তিনি আরো বলেন,শরৎকালের দুর্গোৎসব শুধু উৎসব নয়, মহা-উৎসব। ধর্মীয় আচার অনুষ্ঠান, আধ্যাত্মিকতার অনুভূতি,সংস্কৃতি,বৈচিত্র্য বাণিজ্য,বিদ্যাচর্চা,সামাজিক প্রীতির বন্ধন,
হাজার বছরের বাঙালির ইতিহাস ঐতিহ্যকে সমন্বয় সাধন করে শারদ উৎসব।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে