মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার নিজাম এম্বুলেন্স বঞ্চিত!

0
628

অ আ আবীর আকাশ,লক্ষ্মীপুর:

লক্ষীপুরের রায়পুর উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ড ইউনিটের কমান্ডার মুক্তিযোদ্ধা নিজাম উদ্দিন হঠাৎ অসুস্থ হয়ে পড়লে তার ছেলে আলী হায়দার রাসেল পাঠান অত্র সংসদীয় আসনের সংসদ সদস্য কাজী শহিদ ইসলাম পাপুলের দানকৃত এম্বুলেন্স এর জন্য রায়পুর পৌর মেয়র ইসমাইল খোকনের কাছে টেলিফোন করে অনুনয়-বিনয় করলেও ইসমাইল খোকন তা দিতে রাজি হননি। অবশেষে উপায়ান্তর না পেয়ে মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার নিজামুদ্দিনের অবস্থা আরো খারাপ হয়ে পড়ায় জরুরী নাম্বার ট্রিপল নাইনে ফোন দিয়ে অ্যাম্বুলেন্স ভাড়া করে ঢাকায় নেয়া নেয়া হয়।

এখবর রায়পুর সহ জেলার সর্বত্র দ্রুত ছড়িয়ে পড়লে ঘৃণা ও ক্ষোভ সৃষ্টি হয়।

নিজাম পাঠানের ছেলে আলী হায়দার রাসেল পাঠান জানান, বাবা অসূস্থ্য হওয়ার সাথে সাথে পৌরসভার মেয়রের কাছে রক্ষিত এম্বুলেন্সটির জন্য মেয়র ইসমাঈল খোকন আঙ্কেলকে ফোন দিই। মেয়র আঙ্কেল বলেন, এম্বুলেন্সের ড্রাইভার নাই, গ্যাস নাই, এসি নষ্ট, দেয়া যাবেনা।

পরবর্তীতে ট্রিপল নাইনে ফোন করে ৭ হাজার টাকা ভাড়া দিয়ে এম্বুলেন্স ভাড়া করে বাবাকে ঢাকায় নিয়েছি।

এদিকে পাপুল সাহেবের একাউন্টস্ অফিসার রাশেদুল ইসলামের সাথে যেগাযোগ করলে তিনি জানান, গত ৩ দিন পূর্বে মেয়র সাহেবকে এম্বুলেন্সটির ব্যাপারে জিজ্ঞেস করা হলে তিনি বলেন, এম্বুলেন্সটির কোন সমস্যা নাই, ঠিকমতো চলছে।

ইসমাইল খোকন এক প্রশ্নের জবাবে বলেন -তাৎক্ষণিক আমার মন ভাল ছিলনা বলে কি বলেছি আমার মনে নেই।

এই বিষয়ে সংসদীয় আসনের এমপি কাজী শহিদ পাপুলকে একাধিকবার ফোনে চেষ্টা করেও পাওয়া যায়নি।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে