ধর্মীয় ভাবগাম্ভীর্যের মধ্য দিয়ে গাইবান্ধায় ঈদ-উল-আযহা পালিত

0
658

রাকিবুল ইসলাম: যথাযথ ধর্মীয় ভাবগাম্ভীর্য ও ত্যাগের মহিমায় উৎসবমুখর পরিবেশের মধ্য দিয়ে সারাদেশের ন্যায় গাইবান্ধাতেও উদযাপিত হচ্ছে পবিত্র ঈদ-উল-আযহা।

প্রতিবারের মতো এবারো গাইবান্ধায় ঈদের প্রধান জামাত সকাল সোয়া ৮টায় কেন্দ্রীয় ঈদগাহ ময়দানে অনুষ্ঠিত হয়। সোমবার সকাল ৮:০০ টায় গাইবান্ধার গোরস্থান জামে মসজিদে ঈদের প্রথম জামাত অনুষ্ঠিত হয়। এরপর স্টেডিয়াম সংলগ্ন কেন্দ্রীয় ঈদগাহে সকাল ৮:১৫ মিনিটে ঈদের প্রধান জামাত শুরু হয়। এ ছাড়া জেলার বিভিন্ন মসজিদ ও ঈদগাহে ঈদের জামাত অনুষ্ঠিত হয়।
ঈদের দুই রাকাত ওয়াজিব নামাজ আদায়ের জন্য মুসল্লিরা স্থানীয় ঈদগাহ বা মসজিদে সমবেত হন। ধনী-গরিবের ভেদাভেদ ভুলে সবাই এক কাতারে দাঁড়িয়ে ঈদের নামাজ আদায় করেন।

এসময় রাজনীতিক, জনপ্রতিনিধি, সরকারি-বেসরকারি বিভিন্ন দপ্তরের কর্মকর্তা ও পৌর মেয়রসহ বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার মানুষ গাইবান্ধা কেন্দ্রীয় ঈদগাহে নামাজ আদায় করেন।

নামাজ শেষে নিজের পাপমোচন এবং পরিবার-পরিজন, দেশ ও মুসলিম উম্মাহর জন্য দোয়া চেয়ে আল্লাহর দরবারে মোনাজাত করেন। ঈদের জামাতের পরেই মুসল্লিরা পরস্পর কোলাকুলি করে ঈদের শুভেচ্ছা বিনিময় করেন। এবং অনেকেই যান কবরস্থানে স্বজনের কবর জিয়ারত করতে। অশ্রুসিক্ত হয়ে চিরকালের জন্য চলে যাওয়া স্বজনের আত্মার মাগফিরাত কামনা করে আল্লাহর দরবারে মোনাজাত করেন তাঁরা।
ঈদের জামাতের পর পরই পবিত্র ঈদ উল আযহার অন্যতম ইবাদত পশু কোরবানী দেন সামর্থবান ধর্মপ্রান মুসলমানরা।

উল্লেখ্য, সৌদি আরবের সাথে মিল রেখে রবিবারই অনেক জায়গায় ঈদ উদযাপন করেছেন গাইবান্ধাসহ দেশের শতাধিক গ্রামের মানুষ।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে