কানের শর্ট ফিল্ম কর্নারে বাংলাদেশের তিন ছবি

0
549

আগামী ৮ মে থেকে শুরু হচ্ছে ৭১তম কান আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসব। চলবে ১৯ মে পর্যন্ত। এ উৎসবের ‘শর্ট ফিল্ম কর্নার’ নামের অংশে স্থান করে নিয়েছে বাংলাদেশের তিনটি ছবি। সেই তিন ছবি নিয়ে এ আয়োজন—

১১ মিনিটের ‘মেঘে ঢাকা’
নির্মাতা মনজুরুল আলম নির্মিত স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র ‘মেঘে ঢাকা’ (LIFE WITHOUT SUN) অংশ নিচ্ছে ৭১তম কান আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবের শর্ট ফিল্ম কর্নারে। এ ছবির মূল চরিত্রটির নাম সুবিধাবঞ্চিত শিশু হাবু। সে গ্রামের তাঁতশ্রমিক। পক্ষাঘাতগ্রস্ত বাবাকে নিয়েই তার পৃথিবী। হঠাৎ ঘূর্ণিঝড়ে তাঁতশিল্প এলাকায় ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়। গ্রামে বেঁচে থাকার অবলম্বন না দেখে বাবাকে নিয়ে হাবু কাজের সন্ধানে ঢাকায় আসে। সেখানেও বাবাকে নিয়ে এক নতুন ঝড়ের মুখে পড়ে সে।
ছবিটি নিয়ে নির্মাতা বলেন, ‘বিশ্বব্যাপী তাপমাত্রা ও জলবায়ু পরিবর্তনের কারণে বাংলাদেশের ওপর যে বিরূপ প্রভাব পড়ছে, একে একটি মানবিক গল্পের মাধ্যমে তুলে ধরতে চেয়েছি।’
ছবিটির শুটিং হয়েছে পাবনার আটঘরিয়া, রাজধানীর হাতিরঝিল, তেজগাঁও রেলস্টেশন, ফার্মগেটসহ বিভিন্ন স্থানে।

মুঠোফোনে নির্মিত ‘আ পেয়ার অব স্যান্ডাল’
ছবিটির দৈর্ঘ্য মাত্র চার মিনিট। রোহিঙ্গা শিশুকে নিয়ে এগিয়েছে এ ছবির গল্প। তবে সেই ছবির মূল বিষয়বস্তু একজোড়া স্যান্ডেল। টেকনাফের শাহপরীর দ্বীপে নিজের আইফোনে তোলা এই একটি শট পরিচালক জসীম আহমেদকে আলোড়িত করেছিল। সেই দৃশ্যটিই হয়ে গেল পুরো চলচ্চিত্রের মূল বিষয়বস্তু।
জসীম আহমেদ বলেন, ‘আ পেয়ার অব স্যান্ডাল’ ছবিটি পুরোটাই ধারণ করা হয়েছে আইফোনে, এমনকি এর এডিটিং পর্যন্ত করা হয়েছে আইফোনের আই-মুভিস অ্যাপ দিয়ে। পুরো ছবিতে কেবল শরণার্থীদের ঢল, তাদের দুর্ভোগের ছবি তুলে ধরা হয়েছে। কোনো সংলাপ নেই। ইংরেজি সাবটাইটেলে বর্ণনা করা হয়েছে রোহিঙ্গাদের কাহিনি।
ছবিটি কান উৎসবের শর্ট ফিল্ম কর্নারে জায়গা করে নিয়েছে এ বছর।

ব্রেক্সিট নিয়ে ছবি ‘রোয়াই’
ব্রেক্সিট-পরবর্তী লন্ডন। সেখানে ঘটনাচক্রে আটকে পড়েছেন এক রোহিঙ্গা। কী লেখা আছে তাঁর ভাগ্যে? এ রকম গল্প নিয়ে ইকবাল হোসাইন চৌধুরীর লেখা ও পরিচালিত ১৪ মিনিট ব্যাপ্তির স্বল্পদৈর্ঘ্য ছবি রোয়াই। ছবিটি এবার প্রদর্শিত হবে কান আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবের শর্ট ফিল্ম কর্নারে। ইকবাল হোসাইন চৌধুরী বলেছেন, ‘অভিবাসন সংকট সারা পৃথিবীতেই সব সময়ের একটি গুরুত্বপূর্ণ ইস্যু। রোয়াই আসলে অভিবাসী মানুষের দ্বন্দ্ব ও সংকটের গল্প।’
কান আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবের প্রাণকেন্দ্র পালে দো ফাস্তিভালে ১৬ মে সন্ধ্যায় প্রদর্শনী হবে বলে জানিয়েছেন এর পরিচালক। ছবিতে অভিনয় করেছেন বাংলাদেশ, স্পেন, রোমানিয়াসহ নানা দেশের কলাকুশলীরা। ছবির সাউন্ড ডিজাইন করেছেন ইংল্যান্ডের মাইকেল বটরাইট। চিত্রগ্রহণ ও সম্পাদনায় ছিলেন নিশান পাশা।
ইকবাল হোসাইন চৌধুরী পরিচালিত স্বল্পদৈর্ঘ্য ছবি ‘ঢাকা ২.০০’ অংশগ্রহণ করেছিল গত বছর কান চলচ্চিত্র উৎসবের শর্ট ফিল্ম কর্নারে।

Leave a Reply