বাজেট বক্তৃতা দিয়ে নজির গড়লেন প্রধানমন্ত্রী

1
679

অনলাইন ডেস্ক: উৎসবমুখর পরিবেশে একাদশ জাতীয় সংসদের প্রথম ও আওয়ামী লীগের নেতৃত্বাধীন সরকারের ২০তম ও দেশের ৪৮তম বাজেট উপস্থাপিত হয়েছে আজ।

অসুস্থ অবস্থায় জীবনের প্রথম বাজেট পেশ করেন অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল।
২০১৯-২০ অর্থবছরের প্রস্তাবিত বাজেট বক্তৃতায় তিনি বলেন, বাজেটে এমন কোন উপকরণ রাখা হয়নি, যাতে দ্রব্য মূল্য বাড়তে পারে।

‘সমৃদ্ধির সোপানে বাংলাদেশ, সময় এখন আমাদের’ এই শিরোনামে ৫ লাখ ২৩ হাজার ১৯০ কোটি টাকার বাজেট প্রস্তাবনা উত্থাপন কালে অসুস্থ বোধ করলে স্পিকারের অনুমোদ নিয়ে তিনি পাঁচ মিনিটের বিরতির অনুমোদন চান। বিরতির পর অর্থমন্ত্রী স্পিকারের অনুমতি নিয়ে বাজেট বক্তৃতার অবশিষ্ট অংশ উপস্থাপনের জন্য সংসদ
নেতা ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নাম প্রস্তাব করেন। এসময় তুমুলভাবে টেবিল চাপড়িয়ে এই প্রস্তাবকে স্বাগত জানান সংসদ সদস্যরা। পরে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে বাজেট বক্তৃতার বাকি অংশ উপস্থাপনের আহবান স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী।
এসময় প্রধানমন্ত্রী দু:খ প্রকাশ করে বলেন, অর্থমন্ত্রী অসুস্থ। চোখে অপারেশন হয়েছে। পনের মিনিট পর পর তাকে চোখে ড্রপ নিতে হয়। আমিও অসুস্থ। আমারও চোখে অপারেশন হয়েছে। ঠান্ডা লেগে গলার অবস্থাও ভালো না। কথা বলতে গেলে কাশি আসে। তারপরও আমি চেষ্টা করছি। তারপর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বাজেট বক্তৃতা পাঠ করা শুরু করেন। এর মাধ্যমে সূচিত হয় নতুন ইতিহাস। দেশর ৪৮তম বাজেট বক্তৃতা দিয়ে সংসদীয় ইতিহাসে নজিন গড়েন প্রধানমন্ত্রী।
এরআগে গতকাল বেলা তিনটায় স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে সংসদ অধিবেশন শুরু হয়। বাজেট পেশ উপলক্ষে অধিবেশন কক্ষ ছিলো কানায় কানায় পূর্ণ। সরকারি দল আওয়ামী লীগ, সংসদের বিরোধী দল জাতীয় পার্টি ও বিএনপিসহ সংসদ সদস্যরা সংসদ কক্ষে উপস্থিত ছিলেন।

এছাড়া সংসদ গ্যালারি থেকে ভিআইপি লাউঞ্চ সর্বত্রই ছিল উপচে পড়া ভীড়। বেলা ৩ টা ১৩ মিনিটে সম্পূর্ণ ডিজিটাল পদ্ধতিতে নিজের জীবনের প্রথম বাজেট প্রস্তাবনা পড়া শুরু করেন অর্থমন্ত্রী মুস্তফা কামাল। অসুস্থতার কারণে স্পিকারের অনুমোদন নিয়ে বসে বসেই বক্তৃতা দিতে থাকেন।

বাজেট বক্তৃতার আগে সংসদ ভবনের কেবিনেট কক্ষে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে মন্ত্রীসভার বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। বৈঠকে ২০১৯-২০ অর্থবছরের প্রস্তাবিত বাজেট অনুমোদন দেওয়া হয়। প্রতি বছর বাজেট উত্থাপনের আগে রেওয়াজ অনুযায়ী এই বৈঠকটি সংসদ ভবনে অনুষ্ঠিত হয়। মন্ত্রীপরিষদে অনুমোদন
পাওয়ার পর বাজেট বিলে স্বাক্ষর করেন রাষ্ট্রপতি মো. আব্দুল হামিদ।
উৎসবমুখর সংসদে বাজেট বক্তৃতা শুনতে আসেন রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ। সংসদে নিজ কক্ষে বসে বাজেট উপস্থাপন প্রত্যক্ষ করেন তিনি। এরআগে রাষ্ট্রপতিকে সংসদ ভবনে স্বাগত জানান সংসদ নেতা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। প্রধান বিচারপতি, বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নর, পিএসসি চেয়ারম্যান, তিন বাহিনীর প্রধান, বিভিন্ন দেশের কূটনৈতিকসহ অন্যান্যরা বাজেট বক্তৃতা প্রত্যক্ষ করেন।

সূত্রঃ  বিডি-প্রতিদিন

1 মন্তব্য

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে