মুখের দুর্গন্ধ থেকে সাবধান!

0
458

সাবধান! আপনার মুখের দুর্গন্ধের পেছনে রয়েছে বিপদজনক সব রোগ। ক্যানসার, ডায়াবেটিস, কিডনি ফেলিওর, লিভারের সমস্যার জন্যই মুখে দুর্গন্ধ। মাড়ির রোগ, ক্যানসার, অ্যালার্জি, ডায়াবেটিস, লিভারের রোগ, কিডনি ফেলিওর, ক্যানডিডা আলবিকানস, ক্রনিক অম্বল, পাইলেরিয়া, জগরেনস সিনড্রোম রোগের সাইড এফেক্টে মুখে দুর্গন্ধ হয়।
চলুন যেনে নেয়া যাক কোন লক্ষণে কী হয়-

১. মুখের দুর্গন্ধ অ্যামোনিয়া ধরনের হলে বুঝতে হবে টাইপ ১ ডায়াবেটিসের সমস্যা। কারণ দেহে ইনসুলিনের অভাব।

২. যদি নিঃশ্বাসে দিনের প্রত্যেক সময়ে সকালে ঘুম থেকে ওঠার পর যেমন গন্ধ থাকে, তেমন গন্ধ পাওয়া যায়, তাহলে বুঝতে হবে মুখের ভেতর স্যালিভা শুকিয়ে গিয়ে ব্যাকটেরিয়া উৎপন্ন হচ্ছে।

৩. সাইনাসের সমস্যা থাকলে নাকে ও গলায় মিউকাস জমে থাকে। তা থেকে দুর্গন্ধ তৈরি হয়। অ্যালার্জির কারণেও মুখে দুর্গন্ধ তৈরি হয়।

৪. নিঃশ্বাসে যদি টক টক গন্ধ পাওয়া যায়, তাহলে বুঝতে হবে খাবারে প্রোটিনের মাত্রা অতিরিক্ত বেশি হয়েছে। কারণ কিটোনের ভাঙন।

৫. যদি নিঃশ্বাসে আঁশটে গন্ধ হয়, তাহলে বুঝতে হবে কিডনির সমস্যা রয়েছে। কিডনি ঠিকভাবে কাজ না করলে নাইট্রোজেন তৈরি হয়, যা দুর্গন্ধের জন্য দায়ী।

৬. নিঃশ্বাসে পচে যাওয়া মাংসের দুর্গন্ধ পেলে বুঝতে হবে, টনসিলের সমস্যা রয়েছে। টনসিলের কারণে সালফার উত্পন্নকারী ব্যাকটেরিয়া জন্ম নেয়। যে কারণে দুর্গন্ধ তৈরি হয়।

৭. লিভারের সমস্যায়ও মুখে দুর্গন্ধ তৈরি হয়। নিয়মিত দাঁত মেজেও এই দুর্গন্ধ যায় না।

Leave a Reply