সীতাকুণ্ডে কেন্দ্রীয় কর্মসূচির অংশ হিসেবে পূর্ব ঘোষিত ৯৬ ঘন্টার মিল ধর্মঘট

0
723

মিয়া বাবলা, সীতাকুণ্ড,চট্রগ্রামঃ বকেয়া বেতন, মজুরি কমিশন, গ্রাচুইটি, পিএফ’র টাকা প্রদানসহ ৯ দফা দাবিতে আজ সোমবার (১৫ এপ্রিল) থেকে লাগাতার ৯৬ ঘন্টার মিল ধর্মঘট শুরু হয়েছে।

সকাল ৬ টা থেকে শ্রমিকরা কাজে যোগ দেয়নি। ৯ দফা দাবীতে কেন্দ্রীয় কর্মসূচির অংশ হিসেবে পূর্ব ঘোষিত ৯৬ ঘন্টার মিল ধর্মঘট আজ থেকে শুরু হয়।

সকাল থেকে শ্রমিকরা হাফিজ জুট মিলস প্রাঙ্গণে মিছিল সমাবেশ অব্যাহত রেখেছে। অপ্রীতিকর যেকোন ধরণের পরিস্থিতি মোকাবেলায় বাড়তি নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদার করা হয়েছে। হাফিজ জুট মিলস এলাকায় সকাল থেকে শিল্প পুলিশ ও সীতাকুণ্ড মডেল থানার বিপুল সংখ্যক পুলিশ অবস্থান করছে। এছাড়া মিল এলাকায় জলকামান ও সাজোয়াযান প্রস্তুুত রাখা হয়েছে। কেন্দ্রীয় কর্মসূচীর অংশ হিসেবে সীতাকুণ্ড উপজেলার হাফিজ জুট মিলস, গুল আহম্মদ জুট মিলস, আর আর জুট মিল গালফ্রা হাবিব এবং এম.এম জুট মিলস এর হাজার হাজার শ্রমিকরা কারখানার বন্ধ রেখে আন্দোলন অব্যাহত রেখেছে। বাংলাদেশ পাটকল শ্রমিক লীগ ও সিবিএ-নন সিবিএ ঐক্য পরিষদ এই কর্মসূচির আহ্বান করে।

শ্রমিকরা জানান, বিগত চার বছর ধরে বিজেএমসি মজুরি কমিশনসহ শ্রমিকদের দাবি পূরণের কথা বললেও তা বাস্তবায়ন করেনি। এছাড়া বকেয়া মজুরি, পিএফ’র টাকা প্রদান ও বদলি শ্রমিকদের স্থায়ীকরণের বিষয়ে কোনও পদক্ষেপ নেওয়া হয়নি। এ কারণে দাবি আদায়ে ৯৬ ঘন্টা ধর্মঘটের কর্মসূচি দেওয়া হয়। পাটকলগুলোতে শ্রমিকদের ৮ সপ্তাহের মজুরি ও কর্মচারীদের দুই মাসের বেতন বকেয়া রয়েছে। আর্থিক সঙ্কটে কাঁচা পাট কিনতে না পারায়, পাটকলগুলোতে উৎপাদনে ধস নেমেছে।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে